Fri, 14 Dec, 2018
 
logo
 

নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে ভালোবাসায় জয়ী অয়ন ওসমান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিয়ের পূর্ব মুহূর্তে কিছু রোমাঞ্চকর সময় কাঁটিয়েছেন এই জুটি। তাই গল্প আকারে তুলে ধরার একটি ছোট প্রয়াস।


ছেলেটি সম্ভ্রান্ত পরিবারের একজন। মেয়েটিও কোনো অংশে কম না। ২০১০ সালে হঠাৎ করেই একদিন উত্তর চাষাড়ার একটি রাস্তায় ছেলেটির সাথে মেয়েটির প্রথম দেখা হয়, ঠিক ওই মুহূর্তে ছেলেটির মনে বেজে ওঠে ‘প্রহর শেষের আলোর রাঙা সেদিন চৈত্রমাস, তোমার চোখে দেখে ছিলাম আমার সর্বনাশ’।

নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে ভালোবাসায় জয়ী অয়ন ওসমান

কিন্তু মেয়েটি রক্ষণশীল পরিবারের হওয়ায়, ছেলেটির ডাকে সাড়া দেয়নি। ডাকে সাড়া না দেওয়ায় কষ্ট পায় ছেলেটি । খুব শান্ত, নম্র, ভদ্র হলেও সে সহজে হার মেনে নেওয়ার পাত্র নয়। তাই চলতে থাকে দেখা করার চেষ্ঠা। এদিকে মেয়েটিও লুকিয়ে লুকিয়ে ফেসবুকে ছেলেটির ছবি দেখতো, আবার ব্লক করে দিত যাতে ছেলটি তাঁকে খুজে না পায়। তারই ধারাবাহিকতায় একদিন ছেলেটির কষ্ট সফল হয়, মেয়েটি তাঁর ডাকে সাড়া দেয়। শুরু হয় প্রেমের নতুন অধ্যায়। খুব সুন্দর ভাবে চলতে থাকে তাদের ভালোবাসার দিনগুলো। কিন্তু প্রভাবশালী ও রক্ষণশীল দুই পরিবারের অসম্মতিকে জয় করতে দুজনকেই অনেক কাঠ-খড় পোড়াতে হয়েছে। তবু থেমে থাকেনি তাদের ভালোবাসা। সেই প্রেক্ষিতে ২০১৭ সালের ১ ডিসেম্বর দুই পরিবারের সম্মতিতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন সবার প্রিয় অয়ন ওসমান ভাইয়া আর অতি আদরের ইরফানা আহমেদ রাশমি ভাবি। দেখতে দেখতে চলে গেলো একটি বছর।

নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে ভালোবাসায় জয়ী অয়ন ওসমান
শনিবার (১ ডিসেম্বর) তাদের প্রথম বিবাহ বার্ষিকী। আগামী বছর গুলোতেও দুনিয়ার সকল হাঁসি, আনন্দ, সুখ এবং ভালোবাসা আপনারা পেয়ে থাকুন। এই কামনায় লাইভ নারায়নগঞ্জ পরিবার এর পক্ষ থেকে তাঁদের প্রথম বিবাহ বার্ষিকি উপলক্ষে রইলো অনেক অনেক শুভ কামনা।

 

বৈবাহিক জীবণ প্রসঙ্গে অয়ন ওসমান লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন ‘আমার বেস্ট ফ্রেন্ড আগে যেখানে ৩জন ছিল, এখন ৪জন হয়েছে। টপ বেস্ট ফ্রেন্ড আমার ওয়াইফ’। অদ্ভুদভাবে দুজনেরই প্রিয় রং সাদা, নীল এবং প্রিয় খাবার ভাত ও গরুর মাংস। দুজনই ভালোবাসেন ঘুড়ে বেড়াতে। স্ত্রীকে নিয়ে ঘুড়তে যেতে চান ড্রিমল্যান্ড ও মালদ্বিপ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম