Fri, 20 Oct, 2017
 
logo
 

হরতালের প্রভাব নেই না.গঞ্জে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: জামায়াতের আমির মকবুল আহমাদ, সেক্রেটারি জেনারেল শফিকুর রহমানসহ আট নেতাকে গ্রেপ্তার ও রিমান্ডের প্রতিবাদে সারা দেশে দলটির ডাকা সকাল-সন্ধ্যার হরতাল চলছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে নারায়ণগঞ্জে হরতাল চললেও কোথাও হরতালের প্রভাব দেখা যায়নি। অন্যান্য কর্মদিবসের মতো স্বাভাবিকভাবে চলছে যানবাহন। বিভিন্ন সড়কের মোড়ে মোড়ে যানজটও দেখা গেছে।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জের বেশ কয়েকটি এলাকা থেকে ঘুরে দেখা যায়, রাস্তায় সব ধরনের যানবাহন চলাচল করছে। হরতালকে কেন্দ্র করে জেলার বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকে মোতায়েন করা হয়েছে বাড়তি পুলিশ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে যানবাহনও। রাস্তায় বাড়ছে মানুষও। দোকানপাটও খুলতে শুরু করেছে।

হরতালের প্রভাব নেই না.গঞ্জে
নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হরতালের সমর্থনে দলটির নেতাকর্মীরা জেলার যেসব সম্ভাব্য স্থানে বিক্ষোভ করতে পারে সেসব স্থানে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা।
এর আগে গত বুধবার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ মতিয়ার রহমান বলেছেন, হরতাল ডাকা হলে আমরা জনসাধারণ নিরাপত্তা বিধানের যে ধরণের ব্যবস্থা নিয়ে থাকি সেভাবেই পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছি।
হরতালে যেন কোন ধরণের জননিরাপত্তা বিঘ্নিত ঘটাতে না পারে সে জন্য বৃহস্পতিবার আমাদের চেকপোস্ট, সিভিল, মোবাইল টিমসহ বিভিন্ন ভাবে পুলিশ বলবৎ থাকবে। আশাকরি নারায়ণগঞ্জে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটবে না।

উল্লেখ্য, জামায়াতে ইসলামীর আমির মকবুল আহমাদসহ আট নেতাকে গ্রেপ্তার ও রিমান্ডের প্রতিবাদে মঙ্গলবার সারা দেশে তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে দলটি। কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার সারা দেশে বিক্ষোভ এবং বৃহস্পতিবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যার হরতাল ও শুক্রবার দোয়া দিবস পালন করবে তারা।
মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমির ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান এসব কর্মসূচির ঘোষণা দেন।
বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, হাসপাতাল, অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, সংবাদপত্রেরগাড়ি এবং ওষুধের দোকান হরতালের আওতামুক্ত থাকবে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম