Sun, 30 Apr, 2017
 
logo
 

এনসিসি নির্বাচন ২০১৬

এনসিসি নির্বাচন: ২৭ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন যারা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন। দ্বিতীয় বারের মত এ নির্বাচনে ৩৭ পদে জনপ্রতিনিধি র্নিধারণ করেছেন নগরীর ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩৯২ জন ভোটার।

এবারের নির্বাচনী ভোট যুদ্ধে ২০৮ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেছেন। এর মধ্যে মেয়র ৭ জন, সাধারণ কাউন্সিলর ১৫৬ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন ৩৮ জন প্রার্থী।

এবারের নির্বচনে মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন ২৪০ জন, জমা দেন ২২৩ জন, যাচাই-বাছাই শেষে প্রার্থীতা বাতিল হয়েছে ১৫ জনের, পরে আপিল করে বৈধ হয়েছেন ৮জন প্রার্থী ও প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে ১ মেয়রসহ মোট ১৬ জন তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে ইতিম্যধ্যেই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয় ১৭৪টি কেন্দ্রের ১২১৭টি ভোটকক্ষে। নির্বাচনে মোট ১৬৩ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ১২১৭ জন সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও ২ হাজার ৪৩৪ জন পোলিং কর্মকর্তা নিয়োজিত ছিলেন।

সাধারণ কাউন্সিলর পদে লড়াইয়ে জয়ী যারা:
১নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৮জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ঠেলাগাড়ি’ হাজী মোঃ আনোয়ার ইসলাম, ‘ফুলের ঝুড়ি’ হাজী মোঃ ওমর ফারুক, ‘মিষ্টিকুমড়া’ আব্দুর রহিম, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ মোঃ কামাল হোসেন খন্দকার, ‘ঘুড়ি’ সিরাজুল ইসলাম, ‘লাটিম’ হাজী মোঃ ইউনুছ মিয়া, ‘ট্রাক্টর’ জাহিদুল ইসলাম ও ‘ব্যাডমিন্টন’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনরওশন আলী। এর মাঝে ‘ফুলের ঝুড়ি’ মার্কা নিয়ে জয় লাভ করেছেন হাজী মোঃ ওমর ফারুক

২নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৯জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘রেডিও’ মোঃ সুমন কাজী, ‘ব্যাডমিন্টন’ ইকবাল হোসেন, ‘লাটিম’ ইকবাল হোসেন, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ হাজী আব্দুর রহিম মিয়া, ‘ঠেলাগাড়ি’ সেলিনা ইসলাম বিউটি, ‘ঘুড়ি’ আব্দুল হেকিম, ‘ট্রাক্টর’ মোঃ ইসমাইল হোসেন, ‘মিষ্টি কুমড়া’ সোহরাব হোসেন ও ‘ফুলের ঝুড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনমাসুম রানা। তবে এখানে জয়ী হয়েছেন ‘লাটিম’ মার্কা নিয়ে ইকবাল হোসেন

৩ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঠেলাগাড়ি’ শাহজালাল বাদল, ‘লাটিম’ মোঃ আলমগীর ও ‘ঘুড়ি’ তোফায়েল হোসেন। তবে এ ওয়ার্ডেও নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঠেলাগাড়ি’ প্রতীক নিয়ে হেভিওয়েট প্রার্থী ও সাবেক কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল

৪ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৬জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ঘুড়ি’ নজরুল ইসলাম, ‘লাটিম’ আরিফুল হক হাসান, ‘ঠেলাগাড়ি’ ফয়সাল নেওয়াজ রানা, ‘ট্রাক্টর’ লোকমান হোসেন, ‘ব্যাডমিন্টন’ সুমন মাহমুদ, ও ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনএআর রাসেল। তবে এখানে নির্বাচিত হয়েছেন ‘লাটিম’ প্রতীকের প্রার্থী আরিফুল হক হাসান

৫নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৭জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মধ্যে ‘ব্যাডমিন্টন’ মোঃ সাদরিল, ‘ঘুড়ি’ নজরুল ইসলাম, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ ইসমাইল হোসেন, ‘লাটিম’ মোঃ ইমন, ‘করাত’ শফিকুল ইসলাম বাবুল, ‘ঠেলাগাড়ি’ আনিছুর রহমান, ও ‘ফুলের ঝুড়ি’ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন জাহাঙ্গীর আলম। এখানে জয়ী হয়েছেন ‘ব্যাডমিন্টন’ মার্কা নিয়ে মোঃ সাদরিল

৬নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ঠেলাগাড়ি’ মতিউর রহমান মতি, ‘ঘুড়ি’ সিরাজুল ইসলাম মন্ডল ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনমামুনুর রশিদ। এখানে জয়ী হয়েছেন ‘ঠেলাগাড়ি’ প্রতীকের মতিউর রহমান মতি

৭নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৯জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মধ্যে ‘ঠেলাগাড়ি’ আলী হোসেন আলা, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ মোঃ জীবন খান, ‘ঘুড়ি’ জাহানারা হেকিম, ‘রেডিও’ মিজানুর রহমান খান, ‘ব্যাডমিন্টন’ তানভীর কবির, ‘ট্রাক্টর’ আতিকুর রহমান ভুট্টু, ‘মিষ্টি কুমড়া’ হুমায়ন কবির, ‘করাত’ আলাউদ্দিন ভূইয়া, ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনরফিকুল ইসলাম বাবু। ওয়ার্ড টিতে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঠেলাগাড়ি’ মার্কা নিয়ে আলী হোসেন আলা


৮নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৯জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘মিষ্টি কুমড়া’ রুহুল আমিন, ‘ফুলের ঝুড়ি’ সোহেল রানা, ‘ঘুড়ি’ মহসীন ভূইয়া, ‘ঠেলাগাড়ি’ উজ্জল হোসেন, ‘লাটিম’ নিয়ে শওকত হোসেন, ‘ট্রাক্টর’ সালাউদ্দিন আহম্মেদ, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ মোঃ গাজী সেলিম, ‘ব্যাডমিন্টন’ সাগর প্রধান ও ‘করাত’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনদেলোয়ার হোসেন খোকন। এখানে জয়ী লাভ করেছেন ‘মিষ্টি কুমড়া’ প্রতীকের রুহুল আমিন


৯নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ১১জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঠেলাগাড়ি’ সামছুল আলম বাচ্চু, ‘মিষ্টি কুমড়া’ ইসরাফিল প্রধান, ‘রেডিও’ বিল্লাল হোসেন, ‘ট্রাক্টর’ নিয়ে রুকসত আলী, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ শাহজালাল, ‘ব্যাডমিন্টন’ সিরাজুল ইসলাম, ‘ফুলের ঝুড়ি’ আমিনুল ইসলাম আফতাব, ‘এয়ারকন্ডিশনার’ জামালউদ্দিন রুমি, ‘লাটিম’ সুজন আলী, ‘করাত’ মহিউদ্দিন শিকদার ও ‘ঘুড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনসেলিম প্রধান। এখানে নির্বাচিত হয়েছেন ‘মিষ্টি কুমড়া’ প্রতীকের ইসরাফিল প্রধান

১০নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ১০জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘এয়ার কন্ডিশনার’ হাবিব তৌহিদ আহাম্মদ, ‘ব্যাডমিন্টন’ ইফতেখার আলম খোকন, ‘ফুলের ঝুড়ি’ সিরাজ খান, ‘মিষ্টি কুমড়া’ মোঃ খাজা মামুন, ‘রেডিও’ কামরুল হুদা বাবু, ‘ঠেলাগাড়ি’ মোঃ লিয়াকত আলী, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ সালাউদ্দিন খোকন, ‘ট্রাক্টর’ মোহর আলী, ‘ঘুড়ি’ মহিউদ্দিন ভূইয়া ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনকাজী নাজমুল ইসলাম। এখানে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ব্যাডমিন্টন’ নিয়ে ইফতেখার আলম খোকন

১১ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ঠেলাগাড়ি’ অহিদুল ইসলাম ছক্কু, ‘ঘুড়ি’ জমশের আলী ঝন্টু ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনওমর খৈয়াম চঞ্চল। এখানে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঘুড়ি’ মার্কা নিয়ে জমশের আলী ঝন্টু

১২ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঘুড়ি’ শওকত হাশেম শকু, ‘ফুলের ঝুড়ি’ নাঈম ইসলাম ও ‘ব্যাডমিন্টন’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনজিল্লুর রহমান চঞ্চল। এখানে নির্বাচিত হয়েছেন প্রার্থী ‘ঘুড়ি’ প্রতীকের শওকত হাশেম শকু

১৩নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৫জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঠেলাগাড়ি’ মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, ‘লাটিম’ রবিউল হোসেন, ‘ব্যাডমিন্টন’ শাহ ফয়েজউল্লাহ ফয়েজ, ‘রেডিও’ ফরিদ উদ্দীন আহম্মেদ রিপন ও ‘ঘুড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনসাখাওয়াত হোসেন সুমন। এখানে ‘ঠেলাগাড়ি’ মার্কা নিয়ে অংশগ্রহণ করেছেন মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ

১৪ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৪জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঘুড়ি’ নিয়ে মনিরুজ্জামান মনির, ‘লাটিম’ শিশির কুমার চক্রবর্তী, ‘ঠেলাগাড়ি’ শফিউদ্দিন প্রধান, ও ‘রেডিও’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনশওকত হোসেন। ওয়ার্ড টিতে নির্বাচিত হয়েছেন শফিউদ্দিন প্রধান


১৫ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৬জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঘুড়ি’ অসিত বরণ বিশ্বাস, ‘ঠেলাগাড়ি’ আজাহার হোসেন, ‘লাটিম’ জিএম আরমান, ‘ফুলের ঝুড়ি’ মিলন কুমার দাস, ‘রেডিও’ মো: আনোয়ার হোসেন ভূইয়া ও ‘ব্যাডমিন্টন’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনআল মামুন খান। এদের মাঝে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঘুড়ি’ প্রতীকের অসিত বরুণ বিশ্বাস


১৬নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৭জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ব্যাডমিন্টন’ নাজমুল আলম সজল, ‘লাটিম’ ওবায়েদউল্লাহ, ‘ঘুড়ি’ রিয়াদ হোসেন, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ সাইদুল ইসলাম, ‘ফুলের ঝুড়ি’ মো: আকরাম হোসেন, ‘রেডিও’ সৈয়দ ওমর খালেদ ও ‘ঠেলাগাড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনআল আমিন প্রধান। এখানে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ব্যাডমিন্টন’ প্রতীক নিয়ে নাজমুল আলম সজল

১৭ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ২জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঘুড়ি’ মো: আব্দুল করিম বাবু ও ‘ঠেলাগাড়ি’ নিয়ে মিনহাজুল কাদির মিমন। এদের মধ্যে ভোট যুদ্ধে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঘুড়ি’ প্রতীকের প্রার্থী মো: আব্দুল করিম বাবু

১৮নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৪জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ঘুড়ি’ মোঃ কামরুল হাসান মুন্না, ‘ঠেলাগাড়ি’ কবির হোসাইন, ‘রেডিও’ মাকসুদুর রহমান জাবেদ ও ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনএসএম নিজাম উদ্দিন। এরমধ্যে ভোট যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন ‘ঠেলাগাড়ি’ মার্কা নিয়ে কবির হোসাইন

১৯ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘করাত’ ফয়সাল আহাম্মেদ সাগর, ‘ঘুড়ি’ মাসুদ-উর-রহমান ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনমোখলেছ চৌধুরী। তাদের মাঝে নির্বাচিত হয়েছেন ‘করাত’ মার্কা নিয়ে ফয়সাল আহাম্মেদ সাগর। জয়ী হয়েছেন ‘করাত’ প্রতীক নিয়ে ফয়সাল আহাম্মেদ সাগর


২০ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৭জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘ফুলের ঝুড়ি’ মোঃ হোসেন, ‘করাত’ হাজী মো: আওলাদ হোসেন, ‘রেডিও’ মো: সোহেল করিম রিপন, ‘ব্যাডমিন্টন’ জাহাঙ্গীর হোসেন, ‘ঘুড়ি’ মো: হাছান মাসুম মিয়া, ‘ঠেলাগাড়ি’ শাহেন শাহ ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেন গোলাম নবী মুরাদ। জয়ী হয়েছেন ‘লাটিম’ ’ প্রতীক নিয়ে গোলাম নবী মুরাদ

২১ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৭জন অংশগ্রহন করেছেন। এরমধ্যে ‘রেডিও’ হান্নান সরকার, ‘কাটাচামচ’ নুর মোঃ পনেছ, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ খোরশেদ আলম, ‘ঘুড়ি’ আলী আজহার তৌফিক, ‘মিষ্টিকুমড়া’ নিয়ে আব্দুর রশিদ কন্ট্রাকটর, ‘ফুলের ঝুড়ি’ মো: নূর হোসেন, ‘ঠেলাগাড়ি’ ফকিরউল্লাহ ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেন কাজী রেজওয়ানুল হক মামুন। জয়ী হয়েছেন ‘রেডিও’ ’ প্রতীক নিয়ে হান্নান সরকার

২২নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৫জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘এয়ারকন্ডিশনার’ মোঃ শাহ আলম, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ নূর মোহাম্মদ, ‘ঠেলাগাড়ি’ কাজী শহীদ আহাম্মদ, ‘লাটিম’ সুলতান আহম্মেদ ভূইয়া ও ‘ঘুড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেন আজাহারুল ইসলাম ভূইয়া। জয়ী হয়েছেন ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে সুলতান আহম্মেদ ভূইয়া

২৩ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৬জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ট্রাক্টর’ মোঃ হান্নান, ‘ফুলের ঝুড়ি’ আবুল কাউসার আশা, ‘লাটিম’ সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল, ‘করাত’ জসিমউদ্দিন ভূইয়া, ‘ঘুড়ি’ নুরুল ইসলাম ও ‘ঠেলাগাড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেন রাহাত মিয়া। ওয়ার্ডটিতে জয়ী হয়েছেন ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল


২৪নং ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৭জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘করাত’ আনোয়ারুল আলম রিপন, ‘এয়ারকন্ডিশনার’ শাহনেওয়াজ আসাদ, ‘ব্যাডমিন্টন’ শাহীন ইসলাম, ‘রেডিও’ হাজী মোঃ আলী, ‘ঠেলাগাড়ি’ আশিক আহম্মেদ, ‘ঘুড়ি’ আফজাল হোসেন, ‘টিফিন ক্যারিয়ার’ শাহানাল মিয়া, ‘লাটিম’ আব্দুস সাত্তার ও ‘ফুলের ঝুড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনফয়সাল আহম্মেদ। এখানে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঘুড়ি’ প্রতীকের আফজাল হোসেন

২৫নং ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ঘুড়ি’ মোশারফ হোসেন, ‘ব্যাডমিন্টন’ নিয়ে সাইদুর রহমান লিটন ও ‘ঠেলাগাড়ি’ এনায়েত হোসেন। ওয়ার্ড টিতে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঠেলাগাড়ি’ এনায়েত হোসেন

২৬নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ২জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ঘুড়ি’ মোঃ সামছুজ্জোহা ও ঠেলাগাড়ি’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনমোঃ মোজাম্মেল হক। ওয়ার্ডটিতে ‘ঘুড়ি’ মার্কা নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঘুড়ি’ মোঃ সামছুজ্জোহা

২৭নং ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে মোট ৪ জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘ঠেলাগাড়ি’ কামরুজ্জামান বাবুল, ‘ঘুড়ি’ সিরাজুল ইসলাম, ‘মিষ্টি কুমড়া’ আলমগীর মিয়া ও ‘লাটিম’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনইমরান চৌধুরী। ওয়ার্ডটিতে নির্বাচিত হয়েছেন ‘ঠেলাগাড়ি’ কামরুজ্জামান বাবুল


সংরক্ষিত ওয়ার্ডে লড়াইয়ে জয়ী যারা:
সংরক্ষিত ১ নং ওয়ার্ড (১,২ ও ৩)-এ মোট ৫জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘গ্লাস’ মাকসুদা মোজাফফর, ‘মোবাইল’ নাজমা বেগম, ‘আনারস’ আসুরা বেগম, ‘চশমা’ শামীম আরা লাভলী ও ‘বই’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনশাহনাজ পারভীন। এখানে নির্বাচিত হয়েছেন ‘গ্লাস’ প্রতীকের মাকসুদা মোজাফফর


সংরক্ষিত ২ নং ওয়ার্ড (৪,৫ ও ৬)-এ মোট ৪জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘চশমা’ ডলি আক্তার, ‘মোবাইল’ নিয়ে মনোয়ারা বেগম, ‘বই’ নাজমা আক্তার ও ‘আনারস’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনমোসা: সুমি বেগম। ওয়ার্ড টিতে নির্বাচিত হয়েছেন ‘মোবাইল’ নিয়ে মনোয়ারা বেগম

সংরক্ষিত ৩ নং ওয়ার্ড (৭,৮ ও ৯)-এ মোট ৫জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘গ্লাস’ আলেয়া বেগম, ‘জিপগাড়ি’ শিউলী আক্তার, ‘বই’ সেলিনা আক্তার, ‘আনারস’ রেহানা পারভীন ও ‘চশমা’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনআয়েশা আক্তার দিনা। এ ওয়ার্ডে আনারস নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন রেহানা পারভীন

সংরক্ষিত ৪ নং ওয়ার্ড (১০, ১১ও ১২) মোট ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘মোবাইল’ মিনোয়ারা বেগম, ‘বই’ শিউলী আক্তার ও ‘আনারস’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেননূপূর বেগম। এখানে মোবাইল প্রতীকের মিনোয়ারা বেগম নির্বাচিত হয়েছেন।

সংরক্ষিত ৫ নং ওয়ার্ড (১৩,১৪,১৫)-এ ৪জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘চশমা’ সকিনা বেগম, ‘আনারস’ দিলারা মাসুদ ময়না, ‘মোবাইল’ পপি রানী সরকার ও ‘বই’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনশারমিন হাবিব বিন্নি। ওয়ার্ডটিতে ‘বই’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন শারমিন হাবিব বিন্নি

সংরক্ষিত ৬ নং ওয়ার্ড (১৬, ১৭, ১৮)-এ ৩জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘হেলিকপ্টার’ খোদেজা খানম নাসরিন, ‘বই’ আফসানা আফরোজ ও ‘আনারস’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনফারজানা হক। ওয়ার্ডটিতে ‘বই’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন আফসানা আফরোজ।

সংরক্ষিত ৭ নং ওয়ার্ড (১৯, ২০, ২১)-এ ৬ জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘গ্লাস’ ফরিদা বেগম, ‘মোবাইল’ রেজওয়ানা হক সুমি, ‘বই’ শিউলী নওশাদ, ‘হেলিকপ্টার’ অ্যাডভোকেট জাসমীন আহমেদ ও ‘চশমা’ শামিমা আক্তার সুমি, ‘আনারস’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনরাবেয়া আমির পান্না। এখানেও ‘বই’ প্রতীক এর জয়, নির্বাচিত হয়েছেন শিউলী নওশাদ


সংরক্ষিত ৮ নং ওয়ার্ড (২২, ২৩, ২৪)-এ ৪জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘হেলিকপ্টার’ ইসরাত জাহান খান, ‘বই’ নিয়ে শাওন অংকন, ‘চশমা’ রিনা খান ও ‘আনারস’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেন ডলি বেগম। শাওন অংকন এর প্রতীক ‘বই’ নির্বাচিত হয়েছে।

সংরক্ষিত ৯ নং ওয়ার্ড (২৫, ২৬, ২৭)-এ ৪জন অংশগ্রহন করেছেন। তাদের মাঝে ‘আনারস’ সানিয়া আক্তার, ‘বই’ নিয়ে শাহী ইফফাত জাহান মায়া, ‘হেলিকপ্টার’ তাসলিমা বেগম ও ‘চশমা’ প্রতীক নিয়ে লড়েছেনহোসনে আরা। নির্বাচিত হয়েছে ‘চশমা’ প্রতীক নিয়ে হোসনে আরা

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম ২৪