Fri, 17 Aug, 2018
 
logo
 

রোজায় গ্যাস পাচ্ছে না না.গঞ্জের ৩০ হাজার আবাসিক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: রোজায় নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন আবাসিক এলাকায় গ্যাস সংকট আরও তীব্র হয়েছে, সারা দিনেও চুলা জ্বালানো যাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছে অনেক পরিবার।

অনেক জায়গায় ভোরের দিকে গ্যাস থাকলেও সকাল ৮টার পর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত আর গ্যাস পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন গ্রাহকরা। তারা বলছেন, রোজার মধ্যে গ্যাসের অভাবে বাসায় ইফতারি তৈরি করতে না পারায় ভোগান্তি নতুন মাত্রা পেয়েছে।
সংকট উত্তরণের বিষয়ে গ্যাস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান তিতাসের কর্মকর্তারাও আশার বাণী শোনাতে পারেননি।
প্রতিষ্ঠানটির ডিজিএম মকবুল আহম্মেদ লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলছেন, নারায়ণগঞ্জের অনেক জায়গায় আগে থেকেই গ্যাসের সমস্যা। চাহিদার তুলনায় কম গ্যাস পান তারা। এলএনজি সরবরাহ শুরু না হলে এই সংকটের সুরাহা হবে না।
তিতাসের তথ্য মতে, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় প্রায় ৩০ হাজার আবাসিক, ২৭৫টি বাণিজ্যিক, ১২১টি শিল্প পরিষ্ঠান এবং ৩টি সিএনজি স্টেশনের গ্যাস সংযোগ রয়েছে।
জানা গেছে, নগরীর বন্দর উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চল, সদরের ফতুল্লার লালপুর, রামারবাগ, লালখাঁ, সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি, সোরাগায়ের কাচপুরের বিভিন্ন অংশে চরম গ্যাস সংকট।
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৯নং ওয়ার্ডের গৃহিণী নাজমা বেগম বলেন, গত দুই বছর ধরে তাদের গ্যাসের সমস্যা। সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত গ্যাস থাকে না। এরপর গ্যাস এলেও রাত ৮টার পর আবার চলে যাচ্ছে। গ্যাস পাওয়া যাচ্ছে রাত ১১টার পরে। এখন আমাদের ডিউটি হয়ে গেছে কখন গ্যাস আসছে তা দেখার। যখন গ্যাস পাওয়া যাচ্ছে তখন তাড়াহুড়া করে রান্না বসিয়ে দেওয়া।
লালপুরের বাসিন্দা মাইমুনা বেগম বলেন, বিকালে তাদের বাসায় গ্যাস থাকছে না। গ্যাস পাওয়া যাচ্ছে রাতে। “গ্যাসের অভাবে ইফতার তৈরি করতে পারছি না।”

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম