Mon, 28 May, 2018
 
logo
 

সাবধান: নগরে সুন্দরি রমনীরা যখন বিপদজনক!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ভিড়ের মাঝে এক নারীর মোবাইল সরিয়ে নেওয়ার সময় ধরা পড়ে পকেটমার লাকী আকতার তমা (২৬। এ সময় উত্তেজিত জনতা তাকে রাস্তায় এনে গণধোলাই দেয় ওই নারী চোরকে।

গত বৃহস্পতিবার (১০ মে) চাষাড়া মোড়ের খাজা মার্কেটের সামনে এই ঘটনা এটি। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুত্বর আহত অবস্থায় লাকীকে উদ্ধার করে পুলিশ।
এর কিছু ক্ষণপরই নগরীর সমবায় মার্কেটের একটি জুতার দোকানে চোরীর সময় হাতেনাতে ধরা পরে আরো এক সুন্দরী নারী। এঘটনায় অল্পতেই রক্ষা পায় এ অভিযোগী চোর। উত্তেজিত জনতা দু-চারটে চর থাবর দিয়ে ছেড়ে দেয়।

সাবধান: নগরে সুন্দরি রমনীরা যখন বিপদজনক!
জানা গেছে, পকেটমার লাকী আকতার তমা কিংবা ওই নারীই নয়, প্রতিবার রোজা ও ঈদ সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জে এধরণের মৌসুমি অপরাধীর দৌরাত্ম্য বাড়ে। শহরের চিহ্নিত অপরাধীদের সঙ্গে পাশের থানা ও পাশপাশের জেলা গুলো থেকে আসা চোর, ছিনতাইকারী ও অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা থাকে সক্রিয়। এই কাজে বাড়ছে ইদানীং নারী অপরাধীর সংখ্যাও।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পুলিশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা কাজ করছে না। তাই প্রতিদিনই নগরীতে এধরণের ঘটনা ঘটছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ শরফুদ্দীন বলেন, প্রতিবছরই রমজানে আমরা বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা চালু করি, এবছরও রমজান ও ঈদকে সামনে রেখে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যেই আমরা দুই জন নারী চোরকে ধরেছি। এখনও যারা আছে তাদের গ্রেফতারে তৎপর আছে পুলিশ।
এদিকে নারীকে প্রকাশ্যে রাস্তায় পেটানোর নিন্দা জানিয়েছেন মহিলা পরিষদের নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহানারা বেগম। তিনি বলেন, ‘ইদানিং নারী অপরাধীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। আমরা অপরাধী নারী বা পুরুষকে আলাদা করে কোনো বিবৃতি দিতে চাই না। তবে, প্রকাশ্যে এভাবে একজন নারীকে পেটানো ঠিক হয়নি। এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটলে অপরাধীকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া শ্রেয় মনে করি।’

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম