Wed, 24 Oct, 2018
 
logo
 

না.গঞ্জে বোরো ধানের বাম্পার ফলন, খুশি শহুরে কৃষক


লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় বোরো ধানের ভাল ফলন হয়েছে। এরই মধ্যে সোনালী ধানে মাঠ ভরে ওঠায় চাষীদের মনে খুশির দোলা লেগেছে। আগামি সপ্তাহ থেকে পুরোদমে ধান কাটা-মারাই করার জন্য কৃষক-কৃষানীরা প্রস্তুত হয়ে উঠছেন। আবার অনেক স্থানে ইতোমধ্যেই চলছে ধান মারাই কাজ।

কৃষি অফিস ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলার ৫টি উপজেলায় ২৬ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের বোরো ধানের চাষ করা হয়। এরমধ্যে জলাবদ্ধতার কারণে বেশি কিছু জেমিতে উঠতি বোরো ফসল বিনষ্ট হয়।

না.গঞ্জে বোরো ধানের বাম্পার ফলন, খুশি শহুরে কৃষক

শহরে কৃষকরা জানান, ফতুল্লা, সিদ্ধিরগঞ্জ, সোনারগাঁ, আড়াইহাজার ও রূপগঞ্জে উল্লেখযোগ্য ধানের মাঠ এরইমধ্য সোনালী ধানে ভরে উঠেছে। আধাপাকা ধানের মৌ মৌ গন্ধে চাষীদের মনে আনন্দের জোয়ার বইছে। ধান কাটামাড়াই করার জন্য বাড়ি-বাড়ি উঠান-আঙ্গিনায় ধোয়া মোছার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন কৃষান-কৃষানীরা। আবার অনেক স্থানেই চলছে কাটা মারাইও।


চাষীরা জানান, তবে উপজেলা কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের কৃষকদের নিয়ে সময়োচিত পদক্ষেপের কারণে সে রোগ বা কমল ধান গাছের তেমন ক্ষতি হয়নি। এছাড়াও মৌসুমের বেশির ভাগ সময় জুড়ে আবহাওয়া অনুকুলে থাকার কারণে আমন ধানের শীষ পরিপুষ্ট দানায় ভরে উঠেছে।

না.গঞ্জে বোরো ধানের বাম্পার ফলন, খুশি শহুরে কৃষক

জালকুড়ি গ্রামের চাষী রকমতুল্লা জানান, ৫ বিঘা জমিতে এবার ৮০ মন ধান ঘরে উঠবে বলে আশা করছি এবং দামও ভাল থাকায় খুবই ভাল লাগছে।

এব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আব্বাস উদ্দিন জানান, এবছর ভালো ধানে ভালো ফলন হয়েছে। শীলা বৃষ্টি না হলে বাম্পার ফসল ঘরে নিতে পারবে কৃষকরা।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম