Mon, 17 Dec, 2018
 
logo
 

মার্চে দেশে সবচেয়ে বেশি বায়ুদূষণ রেকর্ড না.গঞ্জে


লাইভ নারায়ণগঞ্জ: প্রাচ্যের ডান্ডি হিসেবে খ্যাত নারায়ণগঞ্জ ক্রমাগত তার ঐতিহ্য হারাচ্ছে। যানজট, জলাবদ্ধতা, বায়ুদূষণ, পরিবেশ রক্ষা ও অপরিকল্পিত নগরায়নের ফলে প্রতিনিয়ত বসবাসের অযোগ্য শহরে পরিণত হচ্ছে জেলাটি। বরাবরের মতো এবারও দেশের সবচেয়ে দূষিত নগরীর তালিকায় উঠে এসেছে নারায়ণগঞ্জের নাম।

জানা গেছে, বাতাসের গুণগত মানের ওপর ভিত্তি করে প্রণীত সূচকে এ কথা বলা হয়েছে। ওই সূচকটি প্রস্তুত করেছে ইউএস এনভায়রনমেন্ট প্রটেকশন এজেন্সি। রোববার এ সূচক প্রকাশ করে যুক্তরাষ্ট্রের ওই এজেন্সি।

স্ট্যাটিসটিকস অব বাংলাদেশজ ডিপার্টমেন্ট অব এনভায়রনমেন্ট দেখাচ্ছে যে, বাতাসের গুণগত মানের সূচক ঢাকায় গত ১১ই মার্চ ছিল ৫০১ স্কোরে। একই দিনে এই স্কোর গাজীপুরে ছিল ৩৩৮ এবং নারায়ণগঞ্জে ছিল ৩০৮। দেশে সব শহরের মধ্যে মার্চে সবচেয়ে বেশি বায়ুদূষণ রেকর্ড করা হয় নারায়ণগঞ্জে।

চিকিৎসা বিষয়ক বিশেষজ্ঞদের মতে, শুষ্ক মৌসুমে বাতাসে সাধারণত ধুলোবালির পরিমাণ অন্য সময়ের তুলনায় ৫ গুণ বৃদ্ধি পায়। নির্মাণপ্রতিষ্ঠান থেকে ছড়িয়ে পড়া ধুলোবালি, ময়লায় এই পরিস্থিতিকে আরো খারাপ করে তোলে। শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে এসব ধুলোবালি শরীরে প্রবেশ করে শ্বাসযন্ত্রের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে। দেখা দিতে পারে ফুলফুসের নানা রকম রোগ। দেখা দিতে পারে ভাইরাল ও ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ।

স্ট্যাটিসটিকস অব বাংলাদেশজ ডিপার্টমেন্ট অব এনভায়রনমেন্টের মতে, বর্ষা মৌসুমে বায়ু দূষণটা উল্লেখযোগ্য হারে কমে আসে। উল্লেখ্য, গুণগত মানের দিক থেকে ০-৫০ পর্যন্ত স্কোরকে ভালো হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ৫১ থেকে ১০০ পর্যন্ত স্কোরকে মডারেট বা মাঝারি মানের ধরা হয়। ১০১ থেকে ১৫০ পর্যন্ত স্কোরকে সতর্কতামূলক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ১৫১-২০০ পর্যন্ত স্কোরকে অস্বাস্থ্যকর বা আনহেলদি ধরা হয়। ২০১ থেকে ৩০০ পর্যন্ত স্কোরকে অত্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে ধরা হয়। আর ৩০১ থেকে ৫০০ পর্যন্ত স্কোরকে ধরা হয় চরমভাবাপন্ন অস্বাস্থ্যকর হিসেবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ফেব্রুয়ারিতেও বাতাসের গুণগত মানের ওপর ভিত্তি করে প্রণীত সূচক প্রকাশ করে ইউএস এনভায়রনমেন্ট প্রটেকশন এজেন্সি নামক একটি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠান। সেই সূচকেও নারায়ণগঞ্জের বাতাসের গুণগত মান সবচেয়ে ভয়াবহ ছিলো।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম