Wed, 13 Dec, 2017
 
logo
 

ঝুঁকি জেনেও না.গঞ্জে যত্রতত্র বৃদ্ধি পাচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: খাবারের অভিজাত হোটেল কিংবা বাসা বাড়ি। সবখানেই দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবহার। তবে ভোক্তা পর্যায়ে মান যাচাইয়ের সুযোগ না থাকায় ঝুঁকি নিয়েই রান্নার কাজে ব্যবহার করছেন গ্রাহকরা। এতে প্রায়ই গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ছোট বড় দুর্ঘটনা ঘটছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, ঝুঁকির কথা জেনেও কোথাও গ্যাস সংকট, কোথাও সরবরাহ না থাকা এবং জীবনমানের পরিবর্তনের কারণে প্রতিদিনই বাড়ছে গ্যাস সিলিন্ডারের চাহিদা। ব্যবহার বাড়ার ফলে বেড়েছে দুর্ঘটনাও।  হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে আসা রোগীদের বড় একটি অংশ সিলিন্ডার বিস্ফোরণের শিকার বলে জানা গেছে।

ঝুঁকি জেনেও না.গঞ্জে যত্রতত্র বৃদ্ধি পাচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার
সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জে ২০ অক্টোবর বন্দরে গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ হয় চার শ্রমিক দগ্ধ হয়। এর আগে ১ সেপ্টেম্বর রূপগঞ্জ উপজেলার বরাবো এলাকায় একই রকম ঘটনায়  আরো দুই জন অগ্নিদগ্ধ হয়।


এছাড়া ২০১৬ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি চলন্ত কাভার্ডভ্যানের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে ভ্যানটির চালক ও হেলপার দগ্ধ, ২০১৫ সালের ১৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় শহরের খানপুরে এলপি গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আল আমিনও লিপি বেগম দম্পতি দগ্ধ হয়েছেন।
ঝুঁকি জেনেও না.গঞ্জে যত্রতত্র বৃদ্ধি পাচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার
যদিও অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানের সিলিন্ডার নিয়মিত পরীক্ষা করায় এগুলো নিরাপদ বলে দাবি করেছেন ফতুল্লা এলাকার বিক্রেতা মো. সুবাহান। তিনি বলেন, শুধু ক্রেতাই নয়, খুচরা বিক্রেতা এমনকি ডিলারদেরও সিলিন্ডারের মান যাচাই ও নিরাপত্তার বিষয়ে নির্ভর করতে হয় বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠানের ওপর। তারপরেও আমি বলবো অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানের সিলিন্ডার নিয়মিত পরীক্ষা করায় এগুলো নিরাপদ।

ঝুঁকি জেনেও না.গঞ্জে যত্রতত্র বৃদ্ধি পাচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার
তবে এ বিষয়ে বিস্ফোরক পরিদপ্তর বলছে, তৈরি বা তদারকিতে দুর্বলতা নয় বরং ব্যবহারে ত্রুটির কারণেই দুর্ঘটনা ঘটে সবচেয়ে বেশি। তাই শুধু সবশেষ পরীক্ষার তারিখ ও মেয়াদ দেখে কেনাটাই সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করে না। চুলা থেকে দূরে খোলামেলা সমতল জায়গায় রাখা, লিকেজ দেখা গলে সাবানের ফেনা দিয়ে পরীক্ষা করা, অযথা চুলা জ্বালিয়ে না রাখা, রান্নাঘরে বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা এবং ভাল্ব ও সেফটি ক্যাপ ব্যবহার করতে হবে।

এবিষয়ে নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন মাস্টার খন্দকার ছানাউল হক বলেন, সবশেষ পরীক্ষার তারিখ ও মেয়াদ দেখে সিলিন্ডার কিনলে নিরাপত্তা কিছুটা নিশ্চিত হয়। তবে সিলিন্ডার ব্যবহারের ক্ষেত্রে সচেতন হতে হবে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম