Sun, 26 Feb, 2017
 
logo
 

স্বপ্নের শীতলক্ষ্যা সেতু: ৪৪৮ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রস্তাব অনুমোদন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর উপর ৪৪৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ব্রিজ নির্মাণের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে সরকার। প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিবসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকতারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে শেষে অনুমোদিত প্রস্তাবের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান।
তিনি বলেন, বৈঠকে তাৎক্ষণিকভাবে নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর উপর একটি ব্রিজ নির্মাণ সংক্রান্ত ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। সৌদি ফান্ডে ব্রিজটি নির্মাণে মোট ব্যয় হবে ৪৪৮ কোটি ৮৩ লাখ টাকা। সাইনোকি কর্পোরেশন নামের একটি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে।
তিনি আরও বলেন, জামালপুরের ইসলামপুরে ব্রহ্মপুত্র নদের উপর দুটি ব্রিজ নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় পাইলিং ঘাটে ৫৬০ মিটার দীর্ঘ ব্রিজ নির্মাণে দরপত্রে উলে¬খিত কাজ বেড়ে যাওয়ায় সঙ্গত কারণে এর ব্যয় বেড়ে গেছে। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। দরপত্রে ব্যয় ধরা হয়েছিল ৯৯ কোটি ৭৩ লাখ টাকা তবে তা ১৩ কোটি ২ লাখ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ১১২ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।
মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গাজীপুর সদর হাসপাতাল উন্নীতকরণ প্রকল্পের আওতায় বিদ্যমান ১০০ বেড থেকে ৫০০ বেডে উন্নীতকরণকল্পে ১৫ তলা ভবনের ভিত্তির উপর ৭ তলা ভবন নির্মাণ কাজের ভেরিয়েশন প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের দর ছিল ৪৩ কোটি ৭৮ লাখ  টাকা। তা ২১ কোটি ৮৮ লাখ টাকা বেড়ে মোট ব্যয় দাঁড়িয়েছে ৬৫ কোটি ৬৬ লাখ টাকা।
ভারতীয় ডলার ক্রেডিট লাইন চুক্তির অধীনে বাংলাদেশ রেলওয়ের লাইনসহ ভৈরব ও তিতাস দ্বিতীয় রেলওয়ে সেতু নির্মাণের পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের কাজের ভেরিয়েশনের একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। প্রকল্পে মোট ব্যয় ধরা হয়েছিল ৪৫ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। এর ব্যয় ২২ কোটি ২ লাখ বৃদ্ধি পেয়ে মোট ব্যয় দাঁড়িয়েছে ৬৭ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। এছাড়া ২০১৬-১৭ অর্থবছরে কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি (কাফকো) থেকে চুক্তিবদ্ধ তিন লাখ টনের মধ্যে ২য় লটে ৩০ হাজার টন ব্যাগড গ্রানুলার ইউরিয়া সার আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি টন সারের দাম ২৩৫ দশমিক ৮৭ ডলার হিসেবে মোট ৫৫ কোটি ৯০ লাখ টাকা ব্যয় হবে বলে জানান তিনি।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম ২৪