Sat, 23 Jun, 2018
 
logo
 

‘সড়ক মেরমতে পা ধরা বাকি, কিন্তু কিছুই করছে না’


মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-ফিতর ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে ২৫ তম রোজায় নগরীর বিপনিবিতান জুরে বইছে ঈদ আমেজ। ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়ে মেঘলা আকাশেও থেমে নেই নগরী।

পছন্দের পোশাটি কিনা আনন্দ মিছিলে বঙ্গবন্ধু সড়ক থেকে শুরু করে কালিরবাজ, ডিআইটি বাণিজ্যিক এলাকাসহ সারা শহর জুড়ে যানজট।
সোমবার (১১ জুন) বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আনন্দমূখর ক্রেতাদের আগমনে নগর জুড়ে বইছে জনতা স্রোতের সাইক্লোন। জনতার ঢলে ফুটপাতগুলোতে পা ফেলার জায়গা পর্যন্ত নেই। ঈদ শপিং এর আনন্দে রমজানের ক্লান্তিকে ছাপিয়ে সকল থেকে রাত্রী পর্যন্ত ক্রেতারা মধুর চাকের মতো ভিড় জমাচ্ছেন দোকানগুলোতে । ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়ে শহরের সমবায় মার্কেট, হক প্লাজা, বেইলি টাওয়ার, মার্ক টাওয়ার, লুৎফা টাওয়ার, আজিজ সুপার মার্কেট, সায়েম প্লাজা, পারোনমা প্লাজা, কালির বাজারের ফ্রেন্ডস মার্কেটসহ ডিআইটি বাণিজ্যিক এরালাকার গ্রীণ সুপার, বর্ষণ. সোনার বাংলা, গুলসান, এফ রহমান, ওয়ালী সুপার, ড. মাহবুব শপিংমল সংলগ্ন সড়কগুলোতে সৃষ্ট হয়েছে তীব্র যানজট।
সার্জেন্ট মো. শাহাদত হোসেন লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ঈদ উপলক্ষ্যে মার্কেট কেন্দ্রীক জ্যাম একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। তারপরেও আপাতত যেই জ্যাম পরিলক্ষিত হচ্ছে তাও থাকতো না, যদি লিংক রোডের সড়টি ভালো থাকতো। তবে সর্বপরিভাবে আমাদের আন্তরিক চেষ্টা ও ট্রাফিক পুলিশ সদস্য দ্বিগুণ করণে ২৫ রমজানেও নারায়ণগঞ্জ শহরের জ্যাম স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছে। ঈদের আগমূহুর্ত ও পরবর্তিতেও এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্ঠা করে যাবে নারায়ণগঞ্জ ট্রাফিক বিভাগ।
তিনি আরো বলেন, শহরের যানজট নিরসনে চাষাঢ়া-সাইনবোর্ড লিংকরোডে এই সড়ক মেরমতে জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে শুধু পা ধরার বাকি। কিন্তু তারা এ ব্যাপারে কোন কিছুই করছে না। ভোগান্তি হলেই পুলিশের দায়।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম