Wed, 23 May, 2018
 
logo
 

শীতলক্ষ্যায় কচুরিপানা: পারাপারে ভোগান্তি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীর বিশাল এলাকাজুড়ে কচুরিপানার জট লেগে আছে। এতে কয়েক দিন ধরে নৌযান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। আর দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন লঞ্চ, ট্রলার ও নৌকার যাত্রীরা।

পাশাপাশি ব্যবসায়ীদেরও নৌপথে মালামাল পরিবহন করতে সমস্যা হচ্ছে। আর এই সমস্যা আরো তীব্র হয় বিকালের পর থেকেই।

শীতলক্ষ্যা নদীর কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ওই নদীর বিশাল এলাকাজুড়ে কচুরিপানার জট লেগে আছে। কচুরিপানায় আটকে যাচ্ছে লঞ্চ, ট্রলারসহ অন্যান্য নৌযান। এগুলোর চাপে ডিঙি নৌকায় নদী পারাপার দৃশ্যত অসম্ভব হয়ে পড়েছে। নৌকার মাঝির সঙ্গে যাত্রীরাও বইঠা বেয়ে কচুরিপানার জট ছাড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন।

শীতলক্ষ্যায় কচুরিপানা: পারাপারে ভোগান্তি

শীতলক্ষ্যার লঞ্চ টার্মিনাল এলাকার নৌকার মাঝি সাদেক বলেন, ‘গত এক মাস ধইরা নদীতে কচুরিপানার জ্যাম (জট)। তবে কয়েকদিন ধইরা বেশি কচুরিপানা দেখা দিছে। কয়েক গজ গেলেই নৌকা আটকাইয়া যায়। নদী পার অইতে ১০ মিনিটের জাগায় ৪০-৫০ মিনিট চইলা যায়। যাত্রী লইয়া নদী পার অইতে অনেক কষ্ট অয়।’

নারায়ণগঞ্জের কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী মো. সানি বলেন, তার বাড়ি বন্দর উপজেলা। নৌকায় নদী পার হয়ে কলেজে আসতে হয়। অনেক দিন ধরে কচুরিপানার জন্য নদীতে নৌকা স্বাভাবিকভাবে চলে না। এ জন্য পারাপারে অনেক সময় চলে যায়।

নারায়ণগঞ্জ-চাদপুর নৌপথে চলাচলকারী যাত্রীবাহী লঞ্চ এর সুকানি (চালক) মো. আমিন বলেন, সকাল সাড়ে সাতটায় তার লঞ্চটি চাদপুরের উদ্দেশে নারায়ণগঞ্জ লঞ্চঘাট ছাড়ে। ১১ টায় সেটি চাদপুর পৌঁছানোর কথা। কচুরিপানা ঠেলতে ঠেলতে সেটি চাঁদপুর পৌঁছে দুপুর সাড়ে ১২-১ টায়। কচুরিপানা পেঁচিয়ে লঞ্চের ইঞ্জিন ও পাখা প্রায়ই বিকল হয়।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম