Tue, 17 Jan, 2017
 
logo
 

খাল দখলে সৃষ্ট জলাবদ্ধতার আতঙ্কিত ফতুল্লার বোরো চাষীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : আতঙ্ক নিয়ে জমি তৈরী ও চারা রোপন করছেন জালকুড়ি এলাকার বোরো ধানচাষিরা। গতবছর জলাবদ্ধতায় করাণে আধা পাকা বোরো ধান পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় চলতি মৌসুমে এ আতঙ্ক বিরাজ করছে তাদের মাঝে।


জালকুড়ি এলাকার বোরো ধানচাষি আবুল হোসেন জানান, নির্ধারিত সময়ের পূর্বে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়াতে গতবছর ১ রাতেই আধাপাকা ধান পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ফলে পাকা ধান তোল হয়নি তার। শুধু আবুল হোসেনই নয়, তার মতো এবছর আতঙ্ক নিয়ে ধান রোপন করছেন আরো অনেকেই।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার জালকুড়ি এলাকায় সরকারি খাল ও কৃষকদের ফসলি জমি দখল করে স্থানীয় প্রভাবশালী মহল মৎস্য খামার তৈরি করছে। ফলে গত কয়েক বছর যাবত খাল দখল ও মৎস্য খামার তৈরি করার কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে কয়েক হেক্টর বিঘা জমির ফসল নষ্ট ও অনাবাদি হয়ে পরে।

মঙ্গলবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গতবছর যে জমিতে বোরো ধান আবাদ করা হয়ে ছিলো, এবছর একই জমিতে অনেকেই আর ফসল আবাদ করছেন না। পাশাপাশি যারা করছেন তাদের মাঝেও দেখে দিয়েছে নানা কৌতহল।
খাল দখলে সৃষ্ট জলাবদ্ধতার আতঙ্কিত ফতুল্লার বোরো চাষীরা
এমনই একজন চাষি মজাম্মেল হক। জমিতে রবি ফসল পরির্চচা কালে তার সাথে কথা হয়। তিনি বলেন, গতবছর বোর আবাদ অন্যান্য বছরের তুলনায় খুব ভালো হয়ে ছিলো। কিন্তু শেষ সময় হঠাৎ জলাবদ্ধতার কারণে আধাপাকা ধান নষ্ট হয়েছে। তাই এবছর আমি বোরো ধানের আবাদ করি নি।

একটু সামনে আগাতেই কথা হয় কৃষক দ্বীন ইসলামের সাথে। তিনিও এবছর বোরো আবাদ করবেনা বলে জানান এ প্রতিবেদককে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা তাসনিম জেবিন বিনতে শেখ বলেন, নারায়ণগঞ্জ শিল্পাঞ্চল এলাকা। এর মাঝে এমনিতেই কৃষি জমির পরিমান কম। তার উপর যদি জলাবদ্ধতার কারণে কৃষকরা জমি চাষ না করতে পারে তা খুব দু:খ জনক বিষয়। আমি এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিবো।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম ২৪