Mon, 24 Apr, 2017
 
logo
 

এশিয়া ষ্টীল ২য় বিভাগ ক্রিকেট লীগ: পাইকপাড়া ক্রিকেট একাডেমী ফাইনালে

স্পোটর্স করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: একই মাঠে অনুশীলন করা দু’দলের সেমিতে লড়াই যতটা চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছিল খেলায় তার ছিটেফোঁটাও দেখা মিলেনি। দ্বিতীয় সেমিতে মুখোমুখি হয় শীতলক্ষ্যা ক্রিকেট একাডেমী ও পাইকপাড়া ক্রিকেট একাডেমী।

পাইকপাড়ার দলটিই ফাইনালে গেল। সকালে টস জিতে পাইকপাড়া ২১৯ রান তোলে ৩৯.২ ওভারে। এশিয়া ষ্টীল ২য় বিভাগ ক্রিকেট লীগে পাইকপাড়ার দুই ওপেনার সজিব জুনিয়র এবং সজিব সিনিয়র ভাল সূচনা করেন।


জুনিয়র সজিব ৪৮ রানে এবং সিনিয়র সজিব ৩১ রানে ফিরলেও পরপর দ্রুত উইকেট পড়ে যাওয়ায় চাপে পড়ে দলটি। সামাল দেন তুষার। ৯৩ রানে চার উইকেটের পতনের পর জুটি গড়েন রানার সঙ্গে। দু’জনে মিলে শীতলক্ষ্যার বোলারদের দেখে শুনে খেলে ইনিংসে দৃঢ়তা গড়ে তোলেন। তুষার ২৯ রানে আউট হন। রানা ৬৩ বল মোকাবেলা করে ৩ ছক্কা আর ৬ বাউন্ডারিতে করেন ৬১ রান। ১২ রানে আউট হয়েছেন সাব্বির।


শীতলক্ষ্যার পলাশ ৩২ রানে এবং মেহেদী ৪৬ রানে ৩টি করে এবং নূর মোহাম্মদ ৩০ রানে ২টি উইকেট দখল করেন। ৪০ ওভারে ২২০ রান করলে জয় এবং ফাইনালে ঊঠা। ওভার প্রতি রান ৫.৫। এমন সমীকরণে মাঠে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় শীতলক্ষ্যা। ওপেনার  রিফাত একপ্রান্তে আকড়ে থাকলেও নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় তারা। শাকিল ফিরে যান ২৪ করে। মারকুটে নিয়াজ ফিরেন মাত্র ১০রানেই। পলাশ আউট হন ১৯ এবং সাঈদ ১৫ রানে কাটা পড়েন। রিফাতকে সহায়তা করার মত কোন ব্যাটসম্যানকেই খুঁজে পাওয়া যায়নি। সঙ্গিহীন রিফাত আউট হয়েছেন ৭১ রান করে। ১০৬ বল মোকাবেলায় ৮ বার সীমানার বাইরে বল পাঠিয়েছেন তিনি।


তার সব চেষ্টা বৃথা যায়। ম্যাচ হারে শীতলক্ষ্যা ৪১ রানে। এ রিপোর্ট লেখা শেষে জানা গেছে শীতলক্ষ্যা ক্রিকেট একাডেমী প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের বৈধতা নিয়ে প্রটেষ্ট করেছে।


পাইকপাড়া ক্রিকেট একাডেমী ঃ ২১৯/১০(৩৯.২ওভার) রানা-৬১,সজিব জুনিয়র-৪৮,সজিব সিসিয়র-৩১,তুষার-২৯,সাব্বির-১২। অতিক্তি-২৬। পলাশ-৩/৩২,মেহেদী-৩/৪৬,নূর মোহাম্মদ-২/৩০।


শীতলক্ষ্যা ক্রিকেট একাডেমী ঃ ১৭৮/১০(৩৮.১ওভার) রিফাত-৭১,শাকিল-২৪,পলাশ-১৯,সাঈদ-১৫,নিয়াজ-১০। অতি ঃ-১৯। শাকিল-৩/৩৬,রানা-২/১৪।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম ২৪