Mon, 23 Oct, 2017
 
logo
 

না.গঞ্জের দু’শ মণ্ডপে চলছে দেবী দুর্গার সাজসজ্জা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মাটি দিয়ে গড়া হয়েছে প্রতিমা। এখন তার গায়ে রং-তুলির কাজ বাকি। কোথাও কোথাও সে কাজও চলছে। বাঁশ-কাঠ-শোলায় সাজানো হচ্ছে মণ্ডপ। সর্বজনীন শারদীয় দুর্গোৎসবের আরও কদিন বাকি। এর জন্য প্রস্তুত হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মণ্ডপ।

নারায়ণগঞ্জের অন্যতম পুরোনো মন্দির দেওভোগ জিউর আখড়া। মঙ্গলবার দুপুরে সেখানে দেখা যায়, বাঁশ, চেয়ারের স্তুপ।
মন্দিরের অফিসে কথা হয় বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন কমিটির এক সদস্য সঙ্গে। তিনি বলেন, এ মন্দিরে আরও একটি দুর্গা প্রতিমা আছে। যেটাকে ঢাকেশ্বরী বলা হয়। এই ঢাকেশ্বরী মূর্তি দুর্গার আরেক নাম। এ প্রতিমা সব সময়ই থাকে। মূল মন্দিরের ভেতরে থাকে সেটা। কিন্তু সর্বজনীন উৎসবের জন্য আরেকটি প্রতিমা বানানো হয়। যেটার কাজ প্রায় শেষ দিকে।

জানা গেছে, শুধু দেওভোগ জিউর আখড়াই নয়, নারায়ণগঞ্জে প্রায় দু'শ মণ্ডপে পুরোদমে চলছে শারদীয় দুর্গাপূজার প্রস্তুতি। শরতের কাশ ফুলের নরম ছোঁয়ায় এসেছে দেবী দুর্গার আগমনের বার্তা। দেবীকে সুন্দর করে ফুটিয়ে তোলার প্রতিযোগিতা চলছে নারায়ণগঞ্জের প্রতিমা শিল্পীদের মধ্যে। খড় আর কাদামাটি দিয়ে প্রতিমা তৈরির প্রাথমিক কাজ প্রায় শেষের দিকে। দম ফেলার সময় নেই কারিগরদের। সময় যত ঘনিয়ে আসছে ব্যস্ততা ততোই বাড়ছে তাদের। পূজা উপলক্ষে জেলাজুড়ে মণ্ডপগুলোতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানালেন আয়োজকরা।

নারায়ণগঞ্জের বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটি সভাপতি শংকর কুমার সাহা বলেন, পুলিশের পাশাপাশি আমাদের নিজস্ব ভলান্টিয়াররা কাজ করে। যে কারণে আমরা নিজেরা অনেক সিকিউর ফিল করি। আর নির্বিঘ্নে পূজা পালনের লক্ষ্যে সার্বক্ষণিক পাহারার পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ মণ্ডপে থাকবে পুলিশের সিসি ক্যামেরা।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার মঈনুল হক বলেন, 'প্রত্যেকটা মণ্ডপকে ঘিরে আমরা নিরাপত্তার বলয় গড়ে তুলেছি, যেন দুস্কৃতিকারী বা জঙ্গিরা কোনো ধরণের নাশকতা সৃষ্টি করতে না পারে। জেলার ৫ উপজেলায় এবার একশ' ৯৫টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম