Thu, 24 Jan, 2019
 
logo
 

শত শত শিক্ষার্থী, তারপরেও নিস্তব্ধতা!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: এক রঙের জামা পরে সারিবদ্ধ চেয়ারে বসে ছিলো শত শত শিক্ষার্থী। অপেক্ষা শুধু অতিথি আগমনের। কিছুটা সময় গড়াতেই পেয়ে গিয়েছে সেই কাঙ্ক্ষিত মানুষটির দেখাও। এরপর বরণ করা, শুভেচ্ছা প্রদান, বক্তব্য পর্বসহ আরো কত কি না? কিন্তু পুরোটা সময়ই নিস্তব্ধ ছিলো চারদিক। সকলেরই মনোযোগ ছিলো কার্যক্রমে। আর এ দৃশ্য দেখে অবাক হয়েছে অতিথিরাও।

শুক্রবার (১১ জানুয়ারী) সকালে সিদ্ধিরগঞ্জের হিরাঝিল এলাকায় অবস্থিত গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের ১০ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের চিত্র ছিলো এটি।

বক্তব্য পর্বে অনুষ্ঠানটির প্রধান অতিথি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মু. জিয়াউল হক বলতে বাধ্য হয়েছেন, ‘আমি যখন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনুষ্ঠানে যাই, তখন শিক্ষার্থীরা হই-চই করে। কিন্তু গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের শিক্ষার্থীদের বেলায় দেখলাম সম্পূর্ণ উল্টো। তারা মনোযোগ সহকারে অনুষ্ঠান উপভোগ করছে, আগত অতিথিদের বক্তব্য শুনছে। এমন শৃঙ্খলা দেখে প্রশংসা না করে পারলাম না।’

শত শত শিক্ষার্থী, তারপরেও নিস্তব্ধতা!

গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা, অধ্যক্ষ ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরির্দশক প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজের উপাধ্যক্ষ মীর মোসাদ্দেক হোসেন, গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জিয়াউল হক আরো বলেন, আমার সামনে যে ছেলে-মেয়েরা বসে আছে, আগামী ১০ বছর পরে দেশের উৎপাদন, অর্থনিতিসহ সকল ক্ষেত্রেই প্রধান চালিকা শক্তি হবে তারা। তারাই হবে আগামী দিনের উন্নয়ন এবং অগ্রগতির অংশীদার। তাদেরকেই আমাদের তৈরি করতে হবে। আর এ জন্য প্রয়োজন গুণগত ও মানসম্মত শিক্ষা। এই স্কুলের শিক্ষা ব্যবস্থা দেখে খুবই ভালো লেগেছে। স্কুল কর্তৃপক্ষের প্রচেষ্টাও আছে মানবিক গুনাবলি সম্পূর্ণ করে শিক্ষার্থীদের তৈরি করার। বিষয়টি প্রতিষ্ঠানটির প্রার্থনা সংগীত ফোটে উঠেছে।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জি. ইকবাল আতাহার হোসেন, জাহাঙ্গির আলম, শিশির ঘোষ অমর, আবুল হোসেন, বিমল চন্দ্র কর্মকার পল্টু, রিফাত হোসেন, রাজিব আহাম্মেদ, শিক্ষক উমর ফারুক, আবু তাহের, আবু তালেব, সাইদুর রহমান শুভ, শরীফ হোসাইন, মনিরুল ইসলাম আনিছুর রহমান শকিল প্রমূখ।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন এইচ. এম. ফারুক।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় নারায়ণগঞ্জ জেলায় কলেজগুলোর মধ্যে একমাত্র শতভাগ পাশ করেছে গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল কলেজ। ২০১৬ সাল থেকে ক্রমান্বয়ে উন্নতির শীর্ষে অবস্থান করে আছে কলেজটি।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম