Fri, 17 Aug, 2018
 
logo
 

চেইঞ্জেস স্কুলে দেশি ফলের বাহারি মেলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ডালায় ডালায় সাজানো দেশী ফল। পাশেই বড় অক্ষরে লেখা সেই ফলের পরিচিত ও গুনাবলী। কোনটাতে আম, কোনটাতে জাম, আবার কোনটাতে কলা। শুধু আম, জাম ও কলাই নয়, রয়েছে পেয়ারা, লটকন, করমজা, লাল আঙুর, গাপ, মালটা, কাঁঠাল ও জামবুরাসহ প্রায় ৪০ প্রজাতির ফল।

ইংরেজি মাধ্যম স্কুল চেইঞ্জেস’র চাঁনমারী ও চাষাঢ়া ক্যাম্পাসে নানা জাতের দেশীয় ও বিলুপ্তপ্রায় ফল নিয়ে শুরু হয়েছে ‘ফল উৎসব ২০১৮’ ।

চেইঞ্জেস স্কুলে দেশি ফলের বাহারি মেলা

মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) চেইঞ্জেস স্কুলের কর্তৃপক্ষের আয়োজনে সকাল ৮ টা থেকে শুরু হয় এ উৎসব। প্রথমবারের মতো এ প্রদর্শনী চলে দুপুর ১ টা পর্যন্ত। এসময় সারিবদ্ধ হয়ে সেই ফল ও গুনাবলী দেখেন ছোট ছোট শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকগণ।

নীলা নামের এক অভিভাবক বলেন, বাচ্চাদের ফলের সম্পর্কে তেমন কোন ধারোনা নেই। কোন ফলের কি উপকারিতা তারা সেটি জানে না। এ ফল উৎসবের মধ্যদিয়ে তারা এ ফলগুলোর উপকারিতা জানতে পারবে।

চেইঞ্জেস স্কুলে দেশি ফলের বাহারি মেলা

পিংকি নামে অন্য এক অভিভাবক বলেন, বর্তমান যুগের ছেলে-মেয়েরা বিদেশী ফলের প্রতি বেশি আকৃষ্ট। কিন্তু আমাদের দেশীয় অনেক ভাল ও উন্নতমানের ফল পাওয়া যায়। অথচ, দেশি ফলের প্রতি তাদের তেমন ধারণা নেই। তাই এই ধরনের ফল উৎসব আরো প্রয়োজন। এ উৎসবের মাধ্যমে দেশীয় ফলের কদর বাড়বে।

এদিকে চেইঞ্জেস স্কুলের পরিচালক সোহেল সারোয়ার বলেন, এ প্রজন্মের বাচ্চারা ফল খেতে চায়না, তাদেরকে দেশীয় ফলের প্রতি আকৃষ্ট করার জন্যই এ উৎসব আয়োজন করা। ছোট ছোট অনেক বাচ্চারা জানেই না, কোন ফলের কোন নাম। এ উৎসবের মাধ্যমে তারা ফলগুলো চিনতে পারবে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম