Tue, 22 Aug, 2017
 
logo
 

না.গঞ্জ মহিলা কলেজের ক্লাসে আপত্তিকর ভিডিও প্রদর্শনে তোলপাড়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজে শ্রেণীকক্ষে ছাত্রীদের সামনে অশ্লীল ভিডিও প্রদর্শনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ছাত্রীদের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

এসময় অনেক ছাত্রীই লজ্জায় মাথা নিচু করে রাখে। এক পর্যায়ে তারা কলেজ থেকে বের হয়ে যাবার চেষ্টা করলে তাদেরকে বের হতে দিচ্ছিল না বলে অনেকে জানান। ফলে অনেকটা বাধ্য হয়েই তারা ক্লাসে বসে থাকেন। প্রায় ৪০ মিনিটি ধরে বড় পর্দায় ওই ভিডিওটি চলে।

অন্যদিকে কলেজের প্রিন্সিপাল ও ভাইস প্রিন্সিপাল এ বিষয়টি জানেননা বলে গন মাধ্যমের কর্মীদের জানান। তবে তারা বলছেন এ ঘটনায় আগামী শনিবার একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।  
অন্যদিকে একাধিক ছাত্রী জানান, প্রায়ই ক্লাসে এমন ঘটনা ঘটে। কিন্তু আমরা বলতে সাহস পাইনা, যদি আমাদের প্রাকটিক্যাল পরীক্ষায় নম্বর না দেয়।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় ব্যবসা শিক্ষা বিভাগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিষয়ক প্র্যাকটিক্যাল ক্লাশ শুরুর আগে ক্লাসরুমে বড় পর্দায় প্রজেক্টর চালু করে আইসিটি বিভাগের ডিপার্টমেন্ট সহকারী হাবিবুর রহমান রাজু। তিনি ক্লাসরুম ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভেসে উঠে হিন্দি একটি ছবি যেখানে অশ্লীলতা ও আপত্তিকর দৃশ্য ভরপুর। ওই ভিডিওটিও ১৮ বছরের বেশিদের জন্য প্রযোজ্য, সেটাও শর্ত সাপেক্ষ। প্রদর্শিত ছবিতে এক নারী কোনো এক মুহূর্তে প্রকাশ্যে ধূমপান করছেন। আরেক চিত্রে দেখা যায় খুবই ঘনিষ্ঠ অবস্থায় নরনারীর অবস্থান। ৩টা থেকে ৩টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত ছবিটি প্রদর্শন হয়।

ক্লাসে থাকা এক শিক্ষার্থী নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ করে বলেন, আমাদের আইসিটি ক্লাস শুরু হবার আগে আমাদের হাবিবুর রহমান রাজু (অফিস সহকারী) এসে প্রজেক্টর স্থাপন করার পর এরকম একটি ছবি ছেড়ে চলে যান। আমাদের শিক্ষক আবুল বাশার (প্রভাষক, দর্শন বিভাগ) পরে এসে ছবি বন্ধ করে দিয়ে গেলে ক্লাসে এসে শুরু করেন।

ওই ছাত্রী বলেন, আমরা অনেকেই লজ্জায় কিছু বলতে পারছিলাম না, আবার কলেজ থেকে যে বের হয়ে যাব তাও আমাদেরকে দিচ্ছিল না। তাই অনেকটা বাধ্য হয়েই আমাদেরকে বসে থাকতে হয় এখানে।

ঘটনা সম্পর্কে জানতে কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল ওহাব চৌধুরীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, বৃহস্পতিবার তিনি কলেজে ছিলেন না।

কলেজে থাকা উপাধ্যক্ষ শাহিন সুলতানা জানান, এ বিষয়ে কোন ছাত্রী তাকে কোনো অভিযোগ করেনি। বিষয়টি অধ্যক্ষ তাকে জানিয়েছেন। বিকেল ৩টার দিকে তিনি কলেজ মাঠে সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। ছাত্রীদের সাথে তিনি অনেক আন্তরিক হওয়ার পরও বিষয়টি ছাত্রীরা তাকে না জানানোতে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করেন। আগামী শনিবারে বিষয়টি নিয়ে ছাত্রীদের সাথে তিনি কথা বলবেন। প্রয়োজনে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। সেই কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তীতে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম ২৪