Tue, 11 Dec, 2018
 
logo
 

৩০০ শয্যা হাসপাতালে ৫০টি বৈদ্যুতিক পাখা দিলেন সেলিম ওসমান

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: খানপুর ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের বর্হিবিভাগ সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের বৈদুত্যিক পাখা নষ্ট থাকার কারনে রোগীদের দুর্ভোগের সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় সরেজমিনে হাসপাতালে ছুটে গিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি সেলিম ওসমান।


এ সময় তিনি হাসপাতালের তত্ত্ববাধয়াক ডাক্তার আব্দুল মোতালেব মিয়ার হাতে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৫০টি বৈদ্যুতিক পাখা তুলে দেন এবং সেই সাথে বিকল হওয়া পাখা গুলো দ্রুত মেরামত করার নির্দেশ দেন। সেই সাথে তিনি হাসপাতালের সমস্যার তথ্য তুলে ধরে সংবাদ প্রকাশ করায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিউজ নারায়ণগঞ্জ সহ নারায়ণগঞ্জের সকল সাংবাদিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।


সাংবাদিকদের প্রতি আহবান রেখে তিনি বলেন, সাংবাদিক ভাইয়েরা যদি সমস্যার কথা গুলো তুলে ধরে সংবাদ প্রকাশ করেন তাহলে আমরা সমস্যা গুলো জানতে পেরে দ্রুত সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারি। নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নে সাংবাদিকেরাই পারে সব থেকে বেশি ভূমিকা রাখতে।
মঙ্গলবার ২০ মার্চ দুপুর দেড়টায় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান সরেজমিনে খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতাল পরিদর্শনে যান। এ সময় তাঁর সাথে ছিলেন নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল ও শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু।


দুপুরে এমপি সেলিম ওসমান যখন ৩০০ শয্যা হাসপাতালে উপস্থিত হয়েছেন তখন হাসপাতালের তত্ত্ববধায়ক ডাক্তার আব্দুল মোতালেব মিয়া নামাজ পড়তে মসজিদে থাকায় তিনি তার ব্যক্তিগত সহকারী সিদ্দিকুর রহমানের কাছে হাসপাতালের ওয়ার্ড গুলোতে বৈদ্যুতিক পাখা বিকল হওয়ার সংখ্যা এবং মেরামত না করানোর জানতে চান। পাশাপাশি হাসপাতালের ইলেক্ট্রিক ইঞ্জিনিয়ারের কাছে পাখা নষ্ট এবং মেরামত না হওয়ার কারন সম্পর্কে জানতে চান। এ সময় তারা বিকল পাখার সঠিক সংখ্যা জানাতে ব্যর্থ হন। সেই সাথে ইলেক্ট্রিক ইঞ্জিনিয়ার সংসদ সদস্যকে জানান, ঠা-া লাগার কারনে রোগীরা নিজেরাই পাখা বন্ধ করে রাখেন। ইলেকক্টিক ইঞ্জিনিয়ারের এমন অসংলগ্ন উত্তরে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন এমপি সেলিম ওসমান। এ সময় তিনি রোগীদের সঠিক সেবা প্রদানের কোন প্রকার গাফিলতি হলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের কথা বলেন।


পরে তিনি তাঁর সাথে নিয়ে যাওয়া ব্যক্তিগত তহবিলের ৫০টি বৈদ্যুতিক পাখা হাসপাতালে তত্ত্ববধায়ক ডাক্তার আব্দুল মোতালেব মিয়ার হাতে তুলে দেন।
উল্লেখ্য এর আগে এমপি সেলিম ওসমান ব্যক্তিগত তহবিল থেকে খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের রোগীদের গরমের দুর্ভোগ কমাতে ৭০টি বৈদ্যুতিক পাখা, রোগীদের বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যবস্থা করতে নিজ অর্থায়নে ডিপটিউওয়েল, সার্বক্ষনিক বিদ্যুৎ ব্যবস্থা করতে জেনারেটর সংস্কার, হাসপাতালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ৬৩টি সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন, করে দেন। এছাড়াও নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রি ও বিকেএমইএ এর সহযোগীতায় দুইটি নতুন অ্যাম্বুলেন্স, হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষ ডিজিটালে রূপান্তর, ডাক্তারদের উপস্থিত নিশ্চিত করতে ডিজিটাল হাজিরা মেশিন স্থাপন করে দিয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম