Mon, 18 Dec, 2017
 
logo
 

রোগী মৃত্যুর ঘোষনায় এবার ৩‘শ শয্যা হাসপাতালে ভাঙচুর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: এবার রোগীর মৃত্যুতে খানপুরের ৩‘শ শয্যা হাসপাতালে ভাঙচুর করেছে নিহতের স্বজনেরা। ওই ঘটনায় হাসপাতালের ডাক্তাররা কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ দেখায়।

সোমবার (অক্টোবর) দুপুরে হাসপাতালটির জরুরি বিভাগে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
নিহত রোগী হলেন বন্দরের নাইম মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম সীমান্ত (১৪)। ও বিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।
মৃতর স্বজনরা জানান, বন্দর উপজেলায় শীতলক্ষ্যা নদীতে গোসল করতে বেলা সাড়ে ১২টায়  নিখোঁজ হয় সাইফুল ইসলাম সীমান্ত (১৪) নামে এক স্কুলছাত্র। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বন্দরের ডুবুরি দল প্রায় ১ঘণ্টা চেষ্টা করে সীমান্তকে উদ্ধার করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে। তখন চিকিৎসকের দায়িত্ব অবহেলার কারণে সীমান্ত নামের ওই তরুণের মৃত্যু হয়।
অন্যদিকে চিকিৎসরা দাবি করছেন, ওই কিশোরকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। পরে হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করলে রোগীর স্বজনরা ৩‘শ শয্যায় ভাঙচুর করেন।
নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রাজ্জাক জানান, হাসপাতালে ভাঙচুর করেছে নিহতের স্বজনেরা। হাসপাতালের সিসি ক্যামেরা দেখে অভিযুক্তদের শনাক্ত করা হবে।
উল্লেখ্য, এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে লাঞ্ছনার শিকার হয়েছে খানপুর ৩‘শ শয্যা হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. শেখ বদিউজ্জামান। এঘটনায় আজিজুল হক নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম