Thu, 17 Aug, 2017
 
logo
 

বিশ্ব এইডস দিবসে বক্তারা-‘এইডস প্রতিরোধে আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে’



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ ঃ ‘‘আসুন ঐক্যের হাত তুলি, এইচআইভি প্রতিরোধ করি’’ স্লোগানে বিশ্ব এইডস দিবস পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জনের উদ্যোগে র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়।

র‌্যালীটি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু করে নারায়ণগঞ্জ জেলা কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।
র‌্যালীতে নগরীর বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের ব্যানারে নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। অংশগ্রহণ করা সংগঠনসমূহ হচ্ছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা কর্মরত সংশ্লিষ্ট এনজিওসমূহ, ইউনেস্কো ক্লাব অব নারায়ণগঞ্জ ও ইউনেস্কো ইয়ূথ ক্লাব অব নারায়ণগঞ্জ, গ্রীণ ফর পীস, বাংলাদেশ এনজিও’স নেটওয়ার্ক, প্রভাত সমাজ কল্যাণ সংস্থা, মানব কল্যাণ পরিষদ, আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস ডেলিভারী প্রভাত, জাতীয় তরুণ সংঘ, অক্ষয় নারী সংঘ, এইড বাংলাদেশ, সূর্যের হাসি ক্লিনিক, কল্যাণী সেবা সংস্থা ও সেইভ দ্যা চিলড্রেনসহ অন্যান্য সংস্থাসমূহ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) সারোয়ার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক, নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস, নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সিনিয়র হেলথ এডুকেশন অফিসার মোঃ আমিনুল হক, মেডিকেল অফিসার ডা. মোঃ কামরুজ্জামান, ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালের ডা. আজহারুল হক, বাংলাদেশ এনজিও’স নেটওয়ার্কের নির্বাহী পরিচালক প্রদীপ কুমার দাস, নারায়ণগঞ্জ জেলা ব্র্যাক প্রতিনিধি মোঃ হাসান ওয়াইজ, কল্যাণী সেবা সংস্থার জিএম জাব্বার চিশতী, মানব কল্যাণ পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মান্নান, ইউনেস্কো ইয়ুথ ক্লাব অব নারায়ণগঞ্জের সভাপতি আনন্দ কুমার সেরওয়ার্গী, সধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম রনিসহ অন্যান্য সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। র‌্যালী শেষে নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জনের সভাপতিত্বে নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ কার্যালয়ে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনায় মঈনুল হক বলেন, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। যে অসুস্থ্য হয় একমাত্র সেই উপলদ্ধি করতে পারে অসুস্থ্যের যাতনা। স্বাস্থ্যই বড় সম্পদ, এর চেয়ে বড় সম্পদ পৃথিবীতে আর নেই। এইডস প্রতিরোধে আমাদেরকে সচেতন হতে হবে। এছাড়া সকল অসুস্থতাকে দূর করার জন্য ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলতে হবে। বিশেষ করে এইডসের ক্ষেত্রে ধর্মীয় অনুশাসন মানা জরুরি। অন্যায় করে কেউ পার পেতে পারবে না, তাকে কোন একদিন ধরা দিতেই হবে।

উপস্থিত এক ছাত্রের বক্তব্যের লেশ ধরে তিনি আরো বলেন, বর্তমানের ছাত্র-ছাত্রীরা অনেক সচেতন। এরাই একদিন নৌকার কান্ডারী হয়ে দেশকে বহুদূর এগিয়ে নিয়ে যাবে।

সারোয়ার হোসেন বলেন, এইডস রোধে আমাদেরকে সচেতন হতে হবে। ধর্মীয় মূল্যবোধ মেনে চলতে হবে। বিশেষ করে ছাত্র-ছাত্রীদের সচেতন হতে হবে। বক্তেব্যের সময় তিনি উপস্থিত সাকিবুল হাসান নামে এক ছাত্রের কাছে এইডস’র সচেতনতা সম্পর্কে জানতে চান। ঐ ছাত্রের বক্তৃতায় সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি বলেন, বর্তমান ছাত্র-ছাত্রীরা অনেক সচেতন। এদের মাধ্যমেই আমাদের দেশ উচ্চ মর্যাদার আসনে আদৃষ্ট হবে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম ২৪