Mon, 23 Oct, 2017
 
logo
 

সেদিন আমি শত শত লাশের উপর দিয়ে হেঁটে এসেছি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্টঃ সেদিন ছিল ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ। আমি ছিলাম ঢাকায়। রাতে বাড়ি ফির ছিলাম। বাইরে বের হতেই দেখি শত শত লাশ রাস্তায় পড়ে আছে। এতো লাশ আমি এর আগে কখনও দেখিনি।

চারদিকে অন্ধকার, হৈচৈই। লাশের ফাঁক-ফোকর দিয়ে আলো ঢুকার সুযোগ নেই। সে’কি ভয়ংকর দৃশ্য। মানুষ যার যার মতো করে এদিক-সেদিক ছুটাছুটি করছে। এই দৃশ্য দেখে আমি যুদ্ধের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করলাম। আমার সাথে লেখাপড়া করার সময় অনেকেই যুদ্ধে যাওয়ার চিন্তা করে । কিন্তু পরে তারা কেউ যায়নি। আমি তখন নরসিংদী কলেজে (এইচ,এস,সি) পড়ালেখা করতাম। সে সয়ম আমার বসয় ছিল ২২ থেকে ২৩। বর্তমানে ৬৫। আমি মূলত ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ শোনেই যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করি। আড়াইহাজার থানা থেকে আমিই প্রথম ১৯৭১ সালের (৪এপ্রিল) ভারতে আগরতলা মেলাঘরে ট্রেনিং নিতে যাই। মেলাঘর থেকেই আমাকে আড়াইহাজার থানা কমান্ডারের দায়িত্ব দেয়া হয়। আমার সাথে প্রথম মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন আমার ফুফুতো ভাই লাল মিয়া। সেসময় আড়াইহাজারে আমার সাথে ৪শ’ পঞ্চাশ থেকে ৫শ’ জন যোদ্ধে অংশ নিয়ে ছিলেন। আমি যুদ্ধের সময় বেশিরভাগ সময় এলএমজি অস্ত্র ব্যবহার করেছি। আমার চোখের সামনে মো. মঞ্জুর হোসেন পাক সেনাদের গুলিতে শহীদ হন। সেখানে সেদিন কল্যান্দী এলাকার সিরাজুল ইসলামও শহীদ হয়ে ছিলেন। যখন শোনতে পেতাম মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে পাকসেনা নিহত হয়েছে, তখন আমি অনেক আনন্দ পেতাম। যুদ্ধের সময় আমরা অনেক সময় আমরা নিজেরাই রান্না করে খেতাম। বেশিরভাগ সময়ে আপশপাশের লোকজন আমাদের খাবার দিতেন। মুক্তিযুদ্ধের আসল ফল এখনও আমরা পাইনি। সরকারের কাছে আমার দাবী থাকবে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শেষ করতে হবে। মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্মকে তৈরি করতে হবে। আমরা যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করে দিয়েছি। শিক্ষাদিক্ষায় সব দিকে একটি সুন্দর দেশ গড়ে তুলতে হবে। বতর্মান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অনেক কিছুই করেছে। আমরা বতর্মানে ৫ হাজার টাকা ভাতা পাচ্ছি। ভবিষ্যতে ১০ হাজার হতে পারে। এরই মধ্যে সরকার ঘোষণা দিয়েছেন। তবে মুক্তিযুদ্ধারা কিছু পাবার আশায় যুদ্ধে যায়নি। দেশ স্বাধীন হয়েছে এটাই আমাদের কাছে সবচেয়ে বড় পাওয়া। তার পরও আমি আশা করি যখন যে সরকার দেশ পরিচালনায় দায়িত্ব থাকবে, মুক্তিযোদ্ধাদের উপযুক্ত সম্মান করবে। এরই মধ্যে আড়াইহাজার থেকে ১২ জন মুক্তিযোদ্ধা মারা গেছেন।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম