Mon, 18 Feb, 2019
 
logo
 

দাবী আদায়ে রাস্তায় মডেল গার্মেন্টস‘র শ্রমিকরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বেতন-ভাতা বৃদ্ধি সহ নানা দাবী নিয়ে নগরীতে বিক্ষোভ করেছে তল্লার মডেল গার্মেন্টসের শ্রমিকবৃন্দ। এই গার্মেন্টসের মালিকের নাম মাসুম।


শনিবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে প্রথমে মডেল গার্মেন্টস হতে ২ নং রেল গেইটে আসে শ্রমিকদের মিছিল। পরে চাষাঢ়া শহীদ মিনারে এসে মিছিল শেষ হয়। এসময় তারা শহীদ মিনারে অবস্থান করে সমাবেম করে।

দাবী আদায়ে রাস্তায় মডেল গার্মেন্টস‘র শ্রমিকরা
বিক্ষেভে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলার সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, নারায়ণগঞ্জ জেলার গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি সেলিম মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক জাহঙ্গীর আলম গোলক, সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম শরিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন সোহাগ, সিদ্ধিরগঞ্জের গার্মেন্ট শ্রমিক ঐক্যফ্রন্টের নেতা শাকিল, রুপগঞ্জের মিঠু সহ অন্তিম গার্মেন্টসের প্রায় ৭০০ উৎপাদন শ্রমিক।


এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব বলেন, মডেল গার্মেন্টস শ্রমিকরা কাজ রেখে রাস্তায় কেন? এই জবাব মডেল গার্মেন্টসের মালিক পক্ষকে দিতে হবে। তাদের দাবী ২ টাকা করে পিছ মূলণ্য বৃদ্ধি করতে হবে, বাৎসরিক ছুটি, ছাটাইকৃতদের আইন ও নিয়ম অনুযায়ী ভেতন-ভাতা প্রদান, যারা হামলা করেছে সেই মাস্তানদের শাস্তির ব্যাবস্থা করা, ১ হাজার পিস মালের উৎপাদনে ৫% টাকা কেটে রাখা হয় তা বন্ধ করা, বেতন বৃদ্ধি করা, ভাতা সেবা প্রদান করা, প্রডাকশনদেরকে তাদের পারিশ্রমিক সঠিকভাবে প্রদান করা ইত্যাদি এমন নানা বিষয় নিয়ে তারা রাস্তায় নেমে আসছে। আমরা দাবীগুলো নিলাম। তারপর এই দাবীগুলো নিয়ে আমরা ডিসি মহোদয়, এসপি মহোদয়, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ, বিকেএমইএ সকল স্তরে এই দাবীগুলো উত্থাপন করবো।


শ্রমিকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, তোমাদের দাবীগুলো যৌক্তিক। আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই দাবী গুলো যাতে আদায় করা যায়, তার জন্য সংগ্রাম করে যাবো।

দাবী আদায়ে রাস্তায় মডেল গার্মেন্টস‘র শ্রমিকরা
এই সম্পর্কে নারায়ণগঞ্জ জেলার গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি সেলিম মাহমুদ বলেন, মডেল গার্মেন্টসের শ্রমিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা কেন করা হলো। কে দিয়েছেন তাদেরকে শ্রমিকদের পিছনে লেলিয়ে আমরা কিন্তু জানি। এই শ্রমিকদেরকে অত্যাচার করছেন তাদের বাড়িঘরে গিয়ে হামলা করে। আমরা জানি মডেল গার্মেন্টসের ভিতরের কথা। শ্রমিকদেরকে ঠকিয়ে, তাদের মাথায় বড়ই রেখে ব্যাবসা করবেন তাতো হবে না। অবিলম্বে তা বন্ধ করতে হবে। শ্রমিকরা তাদের ন্যায্য দাবী করেছে। নারায়ণগঞ্জের প্রত্যেকটা গার্মেন্টস শ্রমিকদের উপর যে বঞ্চিত করার লিলা খেলা চলছে মডেল গার্মেন্টসের মালিক তার চাইতে নিকৃষ্ট কাজ করছে।


শ্রমিকদেরকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আমরা আলাপ আলোচনা করে, দাবীগুলো নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে অবশ্যই আইনী প্রক্রিয়ায় তা মোকাবেলা করবো, তার জন্য আন্দোলন করবো।


উল্লেখ্য, মডেল গার্মেন্টসের মোট শ্রমীকের মধ্যে ৯ হাজার শ্রমিক বেতনভূক্ত। ৭০০ জন প্রডাকশনে কাজ করছেন অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বেতনেরভূক্তহীন। উৎপাদন শ্রমিকরাই উক্ত বিক্ষোভটি করেন।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম