Thu, 13 Dec, 2018
 
logo
 

বাজারে শীতের সবজি, দাম চড়া


লাইভ নারায়ণগঞ্জ: শীতের আমেজ না পেলেও বাজারে গিয়ে পাবেন শীতকালীন শাক সবজি। মৌসুম শুরুর আগে এই সবজি আপনার জন্য বিক্রেতার ঝুড়িতে থাকলেও দাম হাকা হচ্ছে অনেক বেশি। তবে শীতকালীন এ সবজির আবার দাম বাজার ভেদে কিছুটা কম বেশি রয়েছে।

সবজি বিক্রেতারা বলছেন, শীতকালীন শাক সবজির আগাম উৎপাদনের জন্য কৃষকের কাছ থেকে তাদের সরবরাহকারীরা বেশি দামে কিনেছেন। তাই তারাও বেশি দামে বিক্রি করছেন। তবে শীত বাড়ার সঙ্গে এসব সবজির দাম কমবে বলেও ক্রেতাদের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন বিক্রেতারা।

শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) সকালে সরেজমিনে বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন ধরনের শীতের সবজি বিক্রি হচ্ছে। এসব সবজির মধ্যে শিম বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১০০ থেকে ১২০ টাকায়, ফুলকপি প্রতিটি ৪০ থেকে ৫০ টাকা, বাঁধাকপি প্রতিটি ৩৫ থেকে ৪০ টাকা ও বেগুন প্রতি কেজি ৪৫ থেকে ৫৫ টাকায়।
এছাড়া ধনে পাতা বিক্রি হচ্ছে ৩০০ টাকা কেজি, গাজর ৭৫ টাকা, মুলা ৪৫ টাকা, করলা ও চিচিঙ্গা ৫০ টাকা, বরবটি ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। টমেটো বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা কেজি। তবে শীতের নতুন আলু বাজারে আসেনি এখনো। ১৫ দিনের মধ্যেই নতুন আলু বাজারে পাওয়া যাবে বলে বিক্রেতারা জানান।
দিগুবাবুর বাজারের এক দোকানে শিমের কেজি ১০০ টাকা হলেও নতুন বাজারে বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়। আবার মহাখালী কাঁচাবাজারে বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকায়। দাম কম বেশির বিষয়ে বিক্রেতাদের দাবি ভালো মন্দের জন্য হয়ে থাকে।

কাঁচাবাজারের সবজি বিক্রেতা রফিকুল ইসলাম বলেন, কয়েক সপ্তাহ ধরেই শীতের নানা ধরনের সবজি বিক্রি শুরু হয়েছে। তবে সরবরাহ বাড়ছে। এসব সবজি নতুন বলে বাজারে দাম কিছুটা বেশি বলেও জানান রফিকুল।
সংশ্লিষ্টরা জানান, শিম, ধুন্দল, ফুলকপি, বাঁধাকপি বেশি আসছে খুলনা, কুষ্টিয়া ও যশোর, চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহ, সাতক্ষীরা থেকে। এসব এলাকায় উঁচু জায়গায় সবজির চাষ ভালো হয়। এর বাইরে যেসব এলাকায় বন্যার পানি সরে গেছে, সেখানেও আগাম সবজির চাষ শুরু হয়েছে। আগামী একমাসের মধ্যে শীতকালীনসব ধরণের সবজি মানুষ সাধ্যমত দামে কিনতে পারবে বলেও জানান ব্যবসায়ীরা।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম