Tue, 24 Apr, 2018
 
logo
 

এক প্রার্থীর জন্যেই নারায়ণগঞ্জ ক্লাব নির্বাচন!

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দীর্ঘদিন ধরে শহরের অনেক সংগঠনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতার সংস্কৃতি চালু হওয়ায় ভোট প্রায় ভুলতে শুরু করেছিলো মানুষ। বিশেষ শ্রেনীর নারায়ণগঞ্জ ক্লাব নির্বাচন নিয়ে তাই কৌতুহল দেখা দিয়েছে সব শ্রেনী মানুষের মাঝে। আগামী ২৩ ডিসেম্বর এলিট শ্রেনীর এ ক্লাবের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।


নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের বিগত নির্বাচনেও ভোটাভুটি হয়নি। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতার এ জোয়ার ছিল নারায়ণগঞ্জ চেম্বার্স অব কমার্স, দেশের শীর্ষ নীট গার্মেন্ট মালিক সংগঠন বিকেএমইসহ অনেক সংগঠনে। অনেকে ধরে নিয়েছিলো, গতবারের মতো এবারেও নারায়ণগঞ্জ ক্লাবে নির্বাচন হবে না, হবে সিলেকশন। তবে একজনের সাহসিকতার কারনে তা সম্ভব হয়নি।

সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী এড. মাহবুবুর রহমান মাসুমের অটল মনোভাবের কারনে এবার ভোট দেখতে পাবে ক্লাব সদস্যরা। একাধিক ক্লাব সদস্য জানান, আমরা নির্বাচন নিয়ে হতাশ ছিলাম। এ ক্লাবে নির্বাচন প্রথা না উঠে যায় এমন শঙ্কায় ছিলাম। তবে এবার এডভোকেট মাসুম সাহসী ভূমিকা রাখায় নির্বাচন হচ্ছে। এবারের নির্বাচনে ২২ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বি করছেন। তাদের মধ্য থেকে  ১১ টি পদে ক্লাবের ১৪০০ ভোটার ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন আগামী দিনের নেতাদের।

ক্লাবের একাধিক সদস্যের  সাথে আলাপ করে জানা গেছে, বিগত দিনে নির্বাচন না হওয়ায় অনেকে শঙ্কা নিয়ে  ক্লাবে আসেননি। এখন তারাও ক্লাবমুখী হচ্ছেন আর ভোট নিয়ে আলাপ আলোচনা করছেন। ইতিমধ্যে প্রার্থীরা নানাভাবে ভোটারদের কাছে প্রচারনা শুরু করেছেন। তাদের এই প্রচার-প্রচারণা চলবে ২০ ডিসেম্বর রাত ১২ টা পর্যন্ত।  

এবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এর সভাপতি খালেদ হায়দার কাজল। এছাড়া নির্বাচন কমিশনার হিসেবে রয়েছেন রাশেদ সারোয়ার, জিএম ফারুক এবং মাসুদ-উর-রউফ এবং এম সোলায়মান। নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের নির্বাচনের আপীল বোর্ডের সদস্যরা হলেন, হুমায়ন কবির শিল্পী, ডা.শাহনেওয়াজ ও মঞ্জুরুল হক মঞ্জু।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম