Sat, 15 Dec, 2018
 
logo
 

নির্বাচন করে ক্ষমতায় আসলেই গণতন্ত্র হয়না : বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন নারায়ণগঞ্জ শহরস্থ ভূইয়া পাড়া এলাকার কৃতি সন্তান বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি জননেতা কমরেড মাহমুদ হোসেন।

আজ সকালে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকাস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে পার্টির সাধারণ সম্পাদক জননেতা কমরেড সাইফুল হকের কাছ থেকে তিনি মনোনয়ন পত্রটি সংগ্রহ করেন। কমরেড মাহমুদ হোসেন এর মনোনয়ন পত্রটি সংগ্রহ কালে উপস্থিত ছিলেন, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য জননেতা কমরেড আবু হাসান টিপু, বহ্নিশিখা জামালী, আকবর খান, আনছার আলী দুলাল, পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা রাশিদা বেগম, ড. খন্দকার মোছলে উদ্দিন, খলিলুর রহমার খলিল, শ ম শিমুল প্রমূখ।

মনোনয়ন পত্র বিতরণকালে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, শাসক শ্রেনীর দুই অংশের ক্ষমতা কেন্দ্রীক লড়াই ইতোমধ্যেই জনগণের সর্বশেষ গণতান্ত্রিক অধিকারটুকুও হরণ করে নিচ্ছে। এরা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষ আর বিপক্ষ শক্তি বলে জনগণকে দুটি পৃথক শিবিরে বিভক্ত করে পরষ্পরের মধ্যে এক রকম যুদ্ধোন্মাদনা সৃষ্টি করে চলেছে। জনগণের বাঁচা মরায় যেন তাদের কিছুই যায় আসেনা। ক্ষমতাসীন হওয়াই তাদের একমাত্র লক্ষ্য। নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, বর্তমান সরকার আর একবার প্রমান করলো নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় আসলেই সেটা গণতান্ত্রিক সরকার হয়ে যায়না। বরং নির্বাচিত ব্যাক্তিবর্গদের দ্বারা পরিচালিত সরকারও যে শুধু স্বৈরাচারী নয় ফ্যাসিবাদীও হয়ে উঠতে পারে গত ১০ বছরে মহাজোট সরকার তা জনগণের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। অতএব জোট মহাজোটের বাইরে জনগণের বিকল্প শক্তির সমাবেশ গড়ে তোলা ছাড়া বিকল্প কোন পথ আপাদত খোলা নেই।

মনোনয়ন গ্রহন পরবর্তি এক প্রতিক্রিয়ায় কমরেড মাহমুদ হোসেন বলেন, আমার নির্বাচনী এলাকা ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকা জুড়ে সর্বত্রই শ্রমজীবী মেহনতী মানুষের বসবাস। এই শ্রমজীবী মেহনতী মানুষের দৈনন্দিন সংকট-সমস্যার সমাধানসহ শ্রমিকশ্রেনীর চুরান্ত মুক্তি এবং স্বাধীনতা পরবর্তি গত ৪৮ বছরের রাজনৈতিক আবর্জনা পরিষ্কার করার জন্যে পার্টির নির্বাচনী প্রতিক কোদাল মার্কায় ভোট দিতে ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকার জনগণকে আমি উদাত্ত আহবান করছি।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম