Fri, 16 Nov, 2018
 
logo
 

গাজী হটাতে ৩ প্রার্থীর ঐক্য, নেপথ্যে আরও...

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতিক। নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের নির্বাচিত সংসদ সদস্য। ২০০৮ সালে প্রথমবারের মতো এ আসন থেকে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হন। নির্বাচিত হওয়ার পর ৯ বছরে এলাকার উন্নয়ণে যেমন অবদান রেখেছেন তেমনি নিজস্ব বলয় তৈরী করে কতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করেছেন।

এদিকে স্থানীয় আওয়ামীলীগের একটি বড় অংশের অভিযোগ গাজী দ্বারা নিগৃহীত, নির্যাতিত হয়েছে রূপগঞ্জ আওয়ামীলীগের অধিকাংশ নেতা-কর্মী। আর একারনে আসন্ন সংসদ নির্বাচনে এমপি গাজীকে ‘না’ বলছে দলের একটি বড় অংশ। গাজী হটাও শ্লোগানে একসঙ্গে মাঠে নেমেছেন আওয়ামীলীগেরই ৩ হেভিওয়েট প্রার্থী।

জানা গেছে, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী গোলাম দস্তগীর গাজী এমপির প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন ডা. শওকত আলী। নির্বাচনের দিন বিকেলে শওকত আলী অভিযোগ করেন, পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া, সন্ত্রাসীদের মহড়া ও কেন্দ্র দখলের কারণে নিরপেক্ষ ভোট হচ্ছে না। প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের গোলাম দস্তগীর গাজীর লোকজন ভোটকেন্দ্রগুলোতে একচ্ছত্র প্রভাব বিস্তার করছে। এ কারণে যে কোনো সময় নির্বাচন বয়কট করতে পারি। পরিস্থিতি সেদিকেই যাচ্ছে। ঐ নির্বাচনে এক প্রকার জোর করেই এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন গাজী গোলাম দস্তগীর। বর্তমানে সেই পরিস্থিতি নেই। দলের ভেতরেই কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে আছেন বর্তমান এমপি গাজী। তার প্রধাণ প্রতিপক্ষই এখন আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতারা। বিশেষকরে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল হাই, রূপগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুইয়া এবং রংধনু গ্রুপের চেয়ারম্যান ও কায়েতপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম। তিন জনই বর্তমানে মাঠে নেমেছেন একসাথে। তাদের ভাষ্য হচ্ছে, গাজী বহিরাগত। তাকে হঠিয়ে যে কাউকে মনোনয়ন দেয়া হোক আমরা একসাথে কাজ করবো। নির্বাচিত করবো সেই প্রার্থীকে। কিন্তু গাজীকে কোন ছাড় নয়। যদিও কেন্দ্রের কঠোর নির্দেশনার কারনে দলের বর্তমান এমপিকে নিয়ে প্রকাশ্য সমালোচনা করা বন্ধ করেছেন এই ৩ প্রার্থী। তবে জোরালো গণসংযোগ অব্যাহত রেখেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, ১০ বছরের মধ্যে সবচে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন রূপগঞ্জের এমপি গোলাম দস্তগীর। গাজী হঠাতে ৩ সম্ভাব্য প্রার্থী মাঠে থাকলেও নেপথ্যে রয়েছেন আরও অনেকে। তাদের মধ্যে আছেন দেশের সর্ববৃহত শিল্প গ্রুপ বসুন্ধরা। আছেন প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা এমপি শামীম ওসমানসহ আরও অনেকেই। তাই রূপগঞ্জে এখন শ্লোগান উঠেছে, বহিরাগত গাজী হঠাও, রূপগঞ্জের স্থানীয় প্রাথীকে নৌকা দেয়া হোক। অবশ্য এ দাবির বিপরীতে এমপি গাজীও বসে নেই। তিনিও চ্যালেঞ্জ গ্রহন করে এগিয়ে চলছেন আপন গতিতে। কিছুদিন আগে আরেক প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেত্রী নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়র সেলিনা হায়াত আইভীকে নিয়ে অনুষ্ঠান করেছেন। সেখানে গাজীর পক্ষে জোরালো বক্তব্য রেখেছেন মেয়র আইভী।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম