Tue, 11 Dec, 2018
 
logo
 

লাইসেন্স পরীক্ষার সময় ছাত্রের পরিচয়পত্র দেখার পরামর্শ শামীম ওসমানের

সরকার শিক্ষার্থীদের ৯ দফা দাবী মেনে নেয়ার পরও একটি বিশেষ শক্তি তাদের বুকের উপর দাঁড়িয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার পথ তৈরি করতে দেশকে অস্থিতিশীল করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান।

শনিবার (৪ আগস্ট) বিকেলে সময় নিউজকে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে তিনি এ আশঙ্কা কথা জানান।

শামীম ওসমান বলেন, দাবী মেনে নেওয়ার পর প্রথমে যেসব ছাত্ররা মুভমেন্ট করেছিল, তারা সরে গেছে। কিন্তু এখন যারা মাঠে নেমেছে তাদের পেছনে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে।

শামীম ওসমান উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, গতকাল মোহাম্মদপুরে শুধু একটি টেইলার্স থেকেই আড়াই হাজার শিক্ষার্থীর ইউনিফর্ম ডেলিভারি নেওয়া হয়েছে। কারা করছে? নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইলে আমার নির্বাচনী এলাকায় একটি টেইলার্স থেকে আড়াইশ’ নতুন ইউনিফর্ম বানিয়ে রাতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এবং এদেরকে মাঠে নামানো হচ্ছে। এদের সাথে জামাত শিবির, স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি এবং কিছু বামপন্থি দলও যুক্ত হয়েছে। এদের স্বার্থ কি?

তিনি আরও বলেন, ছোট ছোট শিক্ষার্থীদের গিনিপিক হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে কিনা সে ব্যাপারে আমি সন্দিহান। এই ইউনিফর্ম বানানোর পেছনে নির্দিষ্ট কোন কারণ আছে। ছাত্রদের মনোবল ভেঙ্গে দেয়া তাদের উদ্দেশ্য হতে পারে। ট্রাকে করে বিভিন্ন পয়েন্টে অপরিচিত চেহারার বহিরাগতদের মাঠে নামানো হচ্ছে। আমি নিজেও তাদের কয়েকজনের সাথে কথা বলেছি। আমার কাছে মনে হয়নি তারা ছাত্র। শামীম ওসমান এই পরিস্থিতির প্রতি গুরুত্ব আরোপ করে অভিভাবকদের পাশাপাশি সর্বস্তরের মানুষকে সতর্ক থাকার আহবান জানান। পাশাপাশি রাস্তায় গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষার সময় সেই ছাত্রটির পরিচয়পত্র দেখে আসেলই সে ছাত্র কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার পরামর্শ দেন।

দেশকে পিছনে দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি শক্তি কাজ করছে বলে দাবি করেন আওয়ামী লীগের এ নেতা।

তিনি এই অপরাজনীতিকে নোংরা রাজনীতি হিসেবে আখ্যা দিয়ে বলেন, আমি এটাকে বলব, দিস ইজ পার্ট অব দ্য ডার্টি পলিটিক্স।

তিনি বলেন, এই নোংরা পলিটিক্স কেন? এই কেন’র উত্তর বের করতে পারলেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। 

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম