Mon, 28 May, 2018
 
logo
 

নগরীতে ছাত্রলীগের বিশাল আনন্দ র‌্যালী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: কমিটি ঘোষণা দেওয়ায় বিশাল আনন্দ র‌্যালী হয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সাংসদ শামীম ওসমান, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে।

সোমবার (১৪ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সরকারি তোলারাম কলেজ প্রাঙ্গন থেকে র‌্যালীটি শুরু হয়। পরে আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে শহীদ মিনারে আলোচনা সভা ও নতুন নেতাদের সঙ্গে পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নগরীতে ছাত্রলীগের বিশাল আনন্দ র‌্যালী
আলোচনা সভায় ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি চন্দনশীল বলেন, বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া ছাত্রলীগ কমিটি পরিবর্তনে যে ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছে তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। আমরা দেখেছি অনেকেই কমিটিকে কুক্ষিগত করে রাখতে চায়। কিন্তু একমাত্র ছাত্রলীগই এ ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছে। তারা জেলা ছাত্রলীগের কমিটিকে কুক্ষিগত করে রাখেনি। বিগত কমিটিগুলোর নেতৃবৃন্দ সফলতার সাথে নেতৃত্ব দিয়ে নতুন প্রজন্মের হাতে যে দ্বায়িত্ব অর্পন করেছে আশাকরি নবনির্বাচিত কমিটি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবে। সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে থেকে তারা তাদের সঠিক দ্বায়িত্ব পালন করবে।

নগরীতে ছাত্রলীগের বিশাল আনন্দ র‌্যালী
আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রবিউল হোসেন ও কমান্ডার গোপীনাথ দাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল, শহর যুবলীগের সভাপতি সাহাদাত হোসেন সাজনু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু, জেলা ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানী, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন, মহানগর ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক হাসনাত রহমান বিন্দু, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আজিজুর রহমান আজিজ, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসমাইল রাফেল।

নগরীতে ছাত্রলীগের বিশাল আনন্দ র‌্যালী
শাহ নিজাম বলেন, শামীম ওসমানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। যিনি প্রত্যেকটি আন্দোলন সংগ্রামের আগ মুহূর্তে একটি সুন্দর কমিটি উপহার দেন। আশা করি নির্বাচিত নতুন ছাত্রলীগের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে কাজ করে যাবে। জাকিরুল আলম হেলাল বলেন, ছাত্রলীগের ইতিহাস রক্তাক্ত ইতিহাস, আন্দোলন সংগ্রামের ইতিহাস, জেল জুলুমের ইতিহাস। নতুন কমিটিকে জানাই অভিনন্দন। সকলের সাথে সমন্বয় করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য কাজ করতে হবে। সাফায়েত আলম সানী বলেন, গত সাত বছরে আমার অনেক ব্যর্থতা রয়েছে। সকল ব্যর্থতা আমি আমার কাধে দিয়ে সকল সফলতা নবকমিটিকে উৎস্বর্গ করছি।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম