Fri, 17 Nov, 2017
 
logo
 

আজাদ বিশ্বাস ও সেন্টুর তৈলময় বক্তব্য, প্রতিমন্ত্রী বলেন ‘বুকের পাটা লাগে’


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘বাংলাদেশের কোথাও দেখিনি আওয়ামীলীগ বিএনপির নেতাদের এক মঞ্চে বক্তব্য রাখতে। উপজেলা চেয়ারম্যান, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান সহ বিএনপির বন্ধুরা যে স্বীকৃতি শামীম ওসমানকে দিয়েছে তা দিতে বুকের পাটা লাগে।’


একটি সমাবেশে কুতুবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এর বক্তব্যে খুশি হয়ে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম হিরু এ কথা বলেন। সমাবেশটি বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার দেলপাড়া মাঠে ডিএনডির মেগা প্রকল্পের উদ্বোধনের প্রাক্কালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাতে আয়োজিত হয়।

আজাদ বিশ্বাস ও সেন্টুর তৈলময় বক্তব্য, প্রতিমন্ত্রী বলেন ‘বুকের পাটা লাগে’
কুতুবপুরে ৫ লাখ মানুষের বসবাস। এর মাঝে ৪ লাখ মানুষ বিগত ৪ থেকে ৫ মাস যাবত জলাবদ্ধতার মধ্যে বসবাস করেছে। এখনো অনেক এলাকায় জলাবদ্ধতা রয়েছে। তাই ডিএনডির উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়ন হলে এই অঞ্চলের মানুষের কাছে আজীবন স্মরণীয় হয়ে থাকবে শামীম ওসমান।


সমাবেশে ফতুল্লা থানা আ’লীগের সভাপতি সাইফুল্লাহ বাদলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শওকত আলীর সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম হিরু, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান, ঢাকা শ্যামপুর সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ এড. সানজিদা খানম, জেলা আ’লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাম শহীদ মোঃ বাদল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড. আবুল আবুল কালাম আজাদ, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন ও ফাতেমা মনির।

মনিরুল আলম সেন্টু বলেন, শামীম ওসমান আমার বড় ভাই। তাকে নিয়ে কোন কথা বললে আমাকে নিয়ে অনেক লেখা লেখি হয়। কিন্তু যা সত্য তা বলতে হবে। ইতোমধ্যেই তিনি এই অঞ্চলে অনেক কাজ করেছে। এখনো শতশত কোটি টাকার কাজ করছেন। তাই তাকে কুতুবপুরবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, এখানে দলমত নির্বিশেষে এমপি ও মন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে অনেকেই এসেছেন। কারণ ডিএনডির উন্নয়ন কাজে তারা যুগান্তকারী প্রদক্ষেপ নিয়েছেন। তাই আমি আমার কুতুবপুরবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
আজাদ বিশ্বাস ও সেন্টুর তৈলময় বক্তব্য, প্রতিমন্ত্রী বলেন ‘বুকের পাটা লাগে’
এদিকে মনিরুল আলম সেন্টুর  বক্তব্য শেষে একই ধরণের বক্তব্য রাখেন বিএনপির উপজেলা চেয়ারম্যান আজাদ বিশ্বাস।

তাদের এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম হিরু বলেন, বিএনপি-জামাতের প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বাংলাদেশের কোথাও দেখিনি এক মঞ্চে বক্তব্য রাখতে বিএনপির নেতাদের। অথচ এখানে আওয়ামীলীগের সমাবেশে এসে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে উন্নয়ন হচ্ছে এর জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান সহ বিএনপির বন্ধুরা যে স্বীকৃতি শামীম ওসমানকে দিয়েছে তা দিতে বুকের পাটা লাগে।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি চন্দন শীল, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস, মহানগর আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, জেলা তাতিলীগের সভাপতি এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন, ফতুল্লা ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান স্বপন, দেলোয়ার হোসেন প্রধান, থানা যুবলীগ সভাপতি মীর সোহেল আলী, সাধারণ সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম, শরীফ হোসেন, লিটন প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম