Fri, 14 Dec, 2018
 
logo
 

বন্দরে স্কুল শিক্ষকের অপমান সইতে না পেরে আত্মহত্যার চেষ্টা

বন্দর করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে সামসুজ্জোহা স্কুলের সহকারি প্রধান শিক্ষক সাইফুল আলম এবার তার অশ্রাব্য ভাষা প্রয়োগের কারণে স্কুলের ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারী আয়া সাবিনা আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন।
বুধবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটে। পরে পরিবারের লোকজনের কারণে আয়া সাবিনা প্রাণে রক্ষা পান। এ নিয়ে স্কুলের শিক্ষকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।
 
 জানা গেছে, বন্দরের সামসুজ্জোহা এমবি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন বছরের ভর্তির নোটিশ ক্লাসে ক্লাসে পৌছে দেয়ার জন্য স্কুলের প্রধান শিক্ষক এরশাদুল্লাহ আয়া সাবিনাকে দিয়ে ক্লাসে ক্লাসে পাঠান। আয়া সাবিনা প্রতিটি ক্লাসে গিয়ে ক্লাস শিক্ষকের কাছে নোটিশ দেন এবং প্রধান শিক্ষকের নির্দেশ মোতাবেক স্বাক্ষর নিয়ে আসেন।
 
 আয়া সাবিনা ১০ শ্রেনীর ক্লাসে সহকারি প্রধান শিক্ষক সাইফুল আলমের ক্লাসে গিয়ে নোটিশ নিয়ে গেলে সে স্বাক্ষর দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। প্রধান শিক্ষক পুনরায় আয়াকে স্বাক্ষরের জন্য পাঠালে সহকারি প্রধান শিক্ষক সাইফুল শিক্ষার্থীদের সামনেই তাকে অশ্রাব্য ভাষায় গালাগাল ও নোটিশ তার মুখে ছুরে দেয়। এ সময় আয়া সাবিনা কান্নায় ভেঙ্কে পড়ে। বিষয়টি স্কুলের শিক্ষকদের মধ্যে জানাজানি হলে সকলের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় রাতে আয়া সাবিনা নিজ বাড়িতে গিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।
 
 এর আগেও শিক্ষক সাইফুল কোচিং বানিজ্য, শিক্ষার্থীদের পিটিয়ে হাসপাতালে প্রেরণসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে বির্তকের সৃষ্টি করেন। এ সকল কারণে তাকে ৩ মাসের জন্য সাময়িক বরখাস্ত ও করা হয়েছিল। এ ব্যপারে স্কুলের প্রধান শিক্ষক এরশাদুল্লাহ’র সাথে মোবাইলে আলাপ করলে তিনি জানান বিষয়টি কমিটিকে জানানো হয়েছে। কমিটি বিষয়টি খতিয়ে দেখবে। 

 

 

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম