Tue, 11 Dec, 2018
 
logo
 

বন্দরে জোড়া খুন: নিহতদের পরিবারের খোঁজ নেয়নি কেউ

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরের চাঞ্চল্যকর জোড়া খুনে নিহতদের পরিবারের খোঁজ নেয়নি কেউ। লক্ষণখোলা মাদ্রাসা সংলগ্ন বাজারে ডাকাতি করতে আসা ডাকাতদের বাঁধা দিতে গিয়ে নৃশ্বংসভাবে নিহত দুই পরিবারের পাশে দাঁড়ায়নি বাজার কমিটি বা ব্যাবসায়ীরা। ফলে কর্মক্ষম স্বজনদের হারিয়ে চরম অর্তকষ্টে মানবেতর জীবন যাপন করছে নিহত ২ নৈশ্য প্রহরির পরিবার।

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বন্দর প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে নিহতদের পরিবারের সদস্যরা চাঞ্চল্যকর এ মামলার ভবিষ্যত নিয়ে শংকা প্রকাশ করেছে।
নিহতের রায়হানউদ্দিনের স্ত্রী আমেনা বেগম বলেন, ৬ মেয়ে ও ছোট ২ ছেলে নিয়ে বড় সংসারে একমাত্র কর্মক্ষম ছিলেন স্বামী। ডাকাতদের বাধা দিতে গিয়ে খুন হওয়ায় এখন আমরা চরম অর্থকষ্টে দিনাতিপাত করছি। আজকে কর্তব্যরত অবস্থায় সরকারী বাহিনীতে কেউ মারা গেলে, বা কোন প্রতিষ্ঠানে কর্তব্যরত অবস্থায় মারা গেলে পরিবারকে সহায়তা করা হয়, আর এখানে আমার স্বামীসহ দুজন কর্তব্যরত অবস্থায় থাকাকালে ডাকাতি করতে বাঁধা দিয়ে প্রাণ হারিয়েছে। কিন্ত বাজার কমিটি বা ব্যবসায়ী সমিতি আমাদের পাশে এসে দাঁড়ায়নি। বরং মামলার খোঁজ খবর নিতে গেলে নানান আপত্তিকর কথা বলেছে।
সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহতের মেয়ে ইয়াসমীন আক্তার। তাদের দাবি জোড়া খুনের মামলার দ্রুত বিচার এবং খুনীদের ফাঁসি নিশ্চিত করার জন্য ও ন্যায় বিচার পাওয়ার জন্য মামলায় যাতে তাদের বাদী করা হয় এ দাবি রাখেন প্রশাসনের প্রতি। সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, নিহত রায়হান উদ্দিনের স্ত্রী আমেনা আক্তর, মেয়ে রহিমা বেগম, ইয়াসমীন, বিলকিছ, মরিয়ম, নাজমিন, সানজিদা, আলী আফসার, মোঃ ওসমান, রওশন আলী মৃধা, হাজী শাহজাদা মৃধা, উজ্জল, শাহীনূর প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম