Tue, 11 Dec, 2018
 
logo
 

আত্মিক খোরাক মিটাতে সংবাদিকতায় আবু সাউদ মাসুদ


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ১৯৬৪ সালে ১৮ই সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন সাংবাদিক আবু সাউদ মাসুদ। আজ ১৮ সেপ্টেম্বর, সাংবাদিক আবু সাউদ মাসুদের জন্মদিন। প্রায়ত চিত্রশিল্পী মরহুম নুর মোহাম্মদ এবং সুফিয়া সুলতানা দম্পতির বড় ছেলে তিনি। দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে মাসুদ সবার বড়।

সাংবাদিক আবু সাউদ মাসুদের জন্মদিন উপলক্ষ্যে লাইভ নারায়ণগঞ্জের পক্ষ থেকে জানাচ্ছি শুভ কামনা। শুভ হোক আপনার আগামীর সকল প্রতাশ্যা।
আবু সাউদ মাসুদের স্কুল জীবন শুরু হয় নারায়ণগঞ্জ হাইস্কুল থেকে। পরবর্তিতে ১৯৭৯ সালে এস.এস.সি পাশ করেন তিনি। ১৯৮১ সালে নারায়ণগঞ্জের তোলারাম বিশ^বিদ্যালয় থেকে পাশ করেন এইচ.এস.সি। এবং একই প্রতিষ্ঠান থেকে ১৯৮৫ সালে গ্রাজুয়েশন শেষ করেন। এরপর দীর্ঘসময় বিরতির দিয়ে ২০১১ সালে এল.এল.বি পাশ করেন।
এলএলবি পাশ করলেও তিনি আইনজীবী পেশায় যোগ দেননি সাংবাদিকতা বজার রাখার স্বার্থে। ছাত্র জীবন থেকেই নেশা ছিলো লেখালেখি ও ফটোগ্রাফির প্রতি। সেই নেশা থেকেই আত্মিক খোরাক মিটানোর জন্য বিভিন্ন ম্যাগাজিন ও পত্রিকায় লেখালেখি শুরু করেন। প্রথম দিকে স্পোর্টস ম্যাগাজিন খেলা’তে লেখালেখি করতেন। তিনি ফটোগ্রাফিতে এমএ বেগ এর কাছে কোর্স সম্পন্ন করেন। কিছু সময় ফটোগ্রাফিও করতেন। পরে আনন্দপত্র বাংলা সংবাদ (আবাস) নিউজ এজেন্সীতে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি হিসাবে সাংবাদিকতা পেশা শুরু করে।
১৯৮৯ সালে দৈনিক রুপালী পত্রিকার মাধ্যমে পত্রিকা জগতে তিনি পা রাখেন। এ পত্রিকায় তিনি নারায়নগঞ্জ ব্যুরো চিফ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে তিনি ষ্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করেছেন দৈনিক মানব জমিন, দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায়। সম্প্রতি তিনি দৈনিক আমাদের সময়ের নিজস্ব প্রতিবেদক হিসেবে যোগদান করেছেন। বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় কাজ করার পাশাপাশি তিনি নিজেও দৈনিক সোজা সাপটা নামে একটি দৈনিকের প্রকাশক ও সম্পাদক। বর্তমানে নিউজ নারায়ণগঞ্জ ডট নেট নামে একটি জনপ্রিয় অনলাইন পোর্টালেরও প্রকাশক ও সম্পাদক তিনি। নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং স্থায়ী সদস্য তিনি।
২০০৮ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির নারায়ণগঞ্জ শাখার সভাপতি তিনি।
পারিবারিক ভাবে বিবাহ বন্ধনে আবন্ধ হয়েছেন বর্তমানে ৩ ছেলের জনক তিনি। ছেলেরা সবাই নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়ণরত।
অবসর সময়ে গান শুনতে পছন্দ করেন তিনি। সবুজ রঙটা খুবই পছন্দ করেন। তার পছন্দের প্রিয় ফুল গোলাপ। তার পছন্দের খাবারের তালিকায় স্-ুস্বাদু বিরিয়ানি।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম