Tue, 11 Dec, 2018
 
logo
 

অপহরণের ৬ দিন পর সিদ্ধিরগঞ্জের যুবক টেকনাফে উদ্ধার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: টেকনাফে অপহরণের ৬ দিন পর নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জের আশিকুর রহমান সজিব নামের এক যুবককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। কক্সবাজারের টেকনাফ হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গীখালী গহীন পাহাড়ে সন্ত্রাসী দলের সদস্যরা মুক্তিপণ আদায় করতে ওই যুবককে অপহরণ করে ছয় দিন আটকে রাখে। পরে রবিবার রাতে তাদের আস্তানা থেকে অপহৃত ওই যুবককে উদ্ধার করে পুলিশ। সজিব নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার খোন্দকার মুজিবুর রহমানের ছেলে।

উদ্ধার যুবক আশিকুর রহমান সজিব বলেন, গত মাসে নারায়ণগঞ্জ ইপিজেডে চাকরির বেতনের টাকা পাই। স্ত্রী অসুস্থ থাকায় ভাড়াবাসাটা ছেড়ে দিয়ে বোনের বাড়িতে রেখে বন্ধুর কথায় ভ্রমণে বের হই। প্রথমে চকরিয়ায় চাচার কাছে দুইদিন থাকার পর বন্ধু ডিপু টেকনাফে ভ্রমণে আসতে মোবাইল নম্বর দেয়। ওই নাম্বারে যোগাযোগ করে চকরিয়া থেকে কক্সবাজার লিং রোড এসে টেকনাফের গাড়িতে এসে
গত ১১ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যার দিকে হ্নীলা রঙ্গিখালী গেইটে পৌঁছালে রিক্সাযোগে ভুলু মাঝি ও ইলিয়াছ নামে দুই সন্ত্রাসী দলের সদস্য রিসিভ করে পাহাড়ের আস্তানায় নিয়ে যায়।

তিনি জানান, সেখানে তাকে রেখে রামদা-অস্ত্র ঠেকিয়ে হত্যার হুমকি-ধমকি দেওয়া হয়। তার পরিবারের কাছ থেকে স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। এ দলে হ্নীলা রঙ্গিখালী ও লেদা এলাকার আবছার, রাসেল, ইলিয়াছ, হামিদ বলে নাম জানা গেছে। এরা দিনের বেলায় পাহাড়ের কাছাকাছি স্থানে রাখলেও রাতে একের পর এক পাহাড় পার করে গহীন পাহাড়ে আস্তানায় নিয়ে রাখত। মুক্তিপণের টাকার জন্য দিনরাত শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়। এমনকি গত ছয় দিনে মাত্র এক বেলা ভাত খেতে দেওয়া হয়।

সজিব বলেন, খাওয়ার পানি চাইলে ধান ক্ষেতের পানি খেতে দেয়। মুক্তিপণের এত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় শেষে ২ লাখ টাকা দাবি করে তারা। মুক্তিপণের টাকা না পেলে উপরের বস শাহ আজম, হারুন, কালা চানের নিকট প্রেরণ করলে লাশ পর্যন্ত গুম হয়ে যাওয়ার হুমকি দিয়ে আসছিল তারা।

এ ব্যাপারে গত ১৫ সেপ্টেম্বর অপহৃত সজিবের স্ত্রী কক্সবাজার মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে অভিযোগের প্রেক্ষিতে মুক্তিপণ দাবিকৃত মুঠোফোনের সূত্র ধরে টেকনাফ মডেল থানার এসআই শরীফুল ইসলামের নেতৃত্বে সর্ঙ্গীয় ফোর্স হ্নীলা রঙ্গিখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত সজিবকে উদ্ধার করা হয়।

টেকনাফ থানার ওসি (তদন্ত) আতিক উল্লাহ বলেন, সজিব নামে অপহৃত এক যুবককে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় অপহরণকারী চক্রের সদস্যরা পালিয়ে যায়। উদ্ধার যুবককে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, হ্নীলা লেদা ও রঙ্গিখালীর এলাকায় বর্তমান ও সাবেক দুই ইউপি সদস্যসহ একাধিক দলের নেতৃত্বে দীর্ঘদিন ধরে হ্নীলার আলীখালী, রঙ্গীখালী এলাকায় ইয়াবা, মানবপাচার, ডাকাতি, অপহরণসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে। এসব এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের সাথে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরাও রয়েছে। এ সব সন্ত্রাসীদের কারণে ওই সব এলাকায় চলছে ত্রাসের রাজত্ব। এ সব ত্রাস সৃষ্টি কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে বড় বড় ঘটনার জন্ম দিতে পারে বলে আশংকা এলাকাবাসীর।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম