Thu, 19 Jul, 2018
 
logo
 

বন্দরে নববধূ নির্যাতন, স্বামী ও শ্বাশুড়ীর বিরুদ্ধে মামলা

বন্দর করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ৫ লাখ টাকা যৌতুক দিতে ব্যার্থ হওয়ায় নববধূ ইসরাত জাহান ইলা (২০)কে বেদম পিটিয়ে বাড়ী থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

বুধবার রাতে নির্যাতিত নববধূ ইসরাম জাহান ইলা বাদী হয়ে যৌতুক লোভী স্বামী, শ্বাশুড়ী ও দেবরকে আসামী করে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ৩২(৭)১৮।

 

জানা গেছে, বন্দর থানার আইস তলা এলাকার আজহার হোসেন মিয়ার মেয়ে ইশরাত জাহান ইলা সাথে একই থানার সোনাকান্দা কবরস্থান রোড এলাকার আনোয়ার হোসেন মিয়ার ছেলে এমরান হোসেন পাভেলের সাথে ইসলামী শরিয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের সময় মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে নববধূ ইলার পিতা আজহার হোসেন ছেলে পক্ষকে ১৬ ভড়ি স্বার্ণালংকার ঘর সাজানোর জন্য ২ লাখ টাকার ফার্নিচার প্রদান করে।

 

এতেও যৌতুক লোভী স্বামী এমরান ও তার মা পাভিন বেগম এবং তার ছোট ছেলে ফয়সাল হোসেন রুবেলের মন ভরেনি। গত ২২ জুন বিকেল ৫টায় উল্লেখিত যৌতুক লোভী স্বামী শ্বাশুড়ী ও দেবর নববধূ ইলার নিকট আরো ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। এতে নববধূ রাজি না হলে স্বামী পাভেল, শ্বাশুড়ী পারভীন ও দেবর রুবেল ক্ষিপ্ত হয়ে নববধূকে বেদম পিটিয়ে পিত্রালয়ে পাঠিয়ে দেয়।

 

এর ধারাবাহিকতায় গত ৮ জুলাই বেলা সাড়ে ১২টায় যৌতুক লোভী স্বামী পাভেল তার শ্বশুড় বাড়ীতে এসে নববধূকে বেদম পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। স্থানীয় এলাকাবাসী সহতায় নববধূ উদ্ধার করে খানপুর হাসপাতালে প্রেরণ করে।

 

এ ব্যাপারে নববধূ বাদী হয়ে উল্লেখিতদের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত এ মামলার কোন আসামীকে গ্রেপ্তারের সংবাদ জানাতে পারেনি পুলিশ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম