Thu, 19 Jul, 2018
 
logo
 

বন্দরে স্কুল ছাত্রী ধর্ষিত, ভাই ও ভাবী গ্রেপ্তার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মীরকুন্ডী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী (১৫)কে অপহরনের পর ৩ দিন আটক রেখে ধর্ষণের মামলায় কথিত ভাই ও ভাবীকে গ্রেপ্তার করেছে বন্দর থানা পুলিশ।

সোমবার (৯ জুলাই) রাতে শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে এদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। যার মামলা নং- ২৫(৭)১৮।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো সদর মডেল থানার নিতাইগঞ্জ এলাকার মৃত লেবু চন্দ্র দাসের ছেলে হরিকমল দাস (৩৭) ও তার স্ত্রী কথিত ভাবি টুম্পা রানী দাস (২৮)

জানা গেছে, বন্দর উপজেলার বালুচর এলাকার লিয়াকত আলী মিয়ার মেয়ে (১৫) মীরকুন্ডী উচ্চ বিদ্যালয়ে ১০ম শ্রেণীতে লেখাপড়া করে আসচ্ছে। সে সুবাধে স্কুল ছাত্রী স্কুলে যাওয়া আসার পথে একই উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের জিধরা এলাকার মোঃ আমিন মিয়ার ছেলে উজ্জল ওরফে সাকিব বিভিন্ন সময়ে তাকে উক্তাক্ত করত।

 

এর ধারাবাহিকতায় গত ৪ জুলাই দুপুরে স্কুল ছাত্রী বাড়ী পার্শ্বে জনৈক মনির হোসেনের দোকন থেকে সদাই আনতে গেলে ওই সময় উৎপেতে থাকা অপহরণকারী উজ্জলসহ অজ্ঞাত ২/৩ জন জোর পূর্বক সিএনজি যোগে অপহরণ করে।

 

পরে অপহরনকারী উজ্জলসহ তার সহযোগীরা স্কুল ছাত্রীকে শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকায় কথিত ভাই হরিকমলের বাড়ীতে আটক রাখে। সেখানে স্কুল ছাত্রীকে ৩ দিন আটক রেখে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষন করে।

 

এ ব্যাপারে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রী মা মিনারা বেগম বাদী হয়ে সোমবার দুপুরে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ রাতে নিতাইগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে কথিত ভাই ও ভাবিকে গ্রেপ্তার করলে লম্পট উজ্জল এখনও পলাতক রয়েছে। এ রির্পাট লেখা পর্যন্ত গ্রেপ্তারকৃতদের মঙ্গলবার দুপুরে ওই মামলায় আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম