Fri, 17 Aug, 2018
 
logo
 

কমু মোল্লাও তার বেয়াইকে খুঁজছে পুলিশ

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার দেলপাড়া টাওয়ারপার এলাকায় ব্যবাসায়ি হাজী ছিদ্দিকুর রহমানের পরিবারে আতংক বিরাজ করেছে। ফের হামলার আশংকা করছেন তারা।সোমবার সকাল ১১টায় স্থানীয় কমর উদ্দিন মোল্লার নেতৃত্বে তার বেয়াই সোহরাব পুত্র রাব্বী মোল্লাসহ আরো কয়েকজন মিলে হাজি ছিদ্দিুকর রহমানের উপর আর্তকিত হামলা চালায় এবং তার জামাতা ছগিরের মালিকানাধীন লাকিফার্নিচারে হামলা ও লুটপাট করে।

হামলার শিকার ব্যবসায়ি হাজি ছিদ্দিকুর রহমান ফতুল্লা থানায় তিনজনের নাম এবং অজ্ঞাত আরো ৩/৪জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে । ফতুল্লা থানার দারোগা মাজেদ মিয়াকে ঘটনাটি তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।পুলিশ অভিযুক্তদের খুঁজছে।
থানার দায়ের করা অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন দুপুর ১১টার দিকে স্থানীয় কমর উদ্দিন মোল্লা ও তার বেয়াই সোহবার এবং পূত্র রাব্বী মোল্লা ছিদ্দিকুর রহমানের মেয়ের জামাই ছগিরের মালিকানাধীন লাকি ফার্নিচারে এসে আতর্কিত হামলা চালায়।এবং হত্যার উদ্দেশ্যে হংকার দেয়।
ছিদ্দিকুর রহমান আরো জানান, আসামী রাব্বী মোল্লা তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গলাটিপে ধরে। এবং কমু মোল্লা ও তার বেয়াই সোহরাবসহ অন্যান্যরা তাকে এলোপাথারি কিলঘুষি মেরে গুরুতর আহত করে। এসময় সোহরাবসহ অন্যান্যরা লাকি ফার্নিচারে লুটপাটের চেষ্টা করে। এসময় দোকানের ক্যাশে ফানির্চার বিক্রির ৩লাখ ৮৯ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়।
থানায় লিখিত অভিযোগে ছিদ্দিকুর রহমান জানান,কমু মোল্লার নেতৃত্বে হামলা ও লুটপাট করে যাওয়ার সময় আসামীরা তাকে জানে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়।
থানা সূত্রে জানা গেছে, কমু মোল্লার বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। টাকা আত্মাসাৎ জমি দখলের চেষ্টা এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে সিআইডি পরিদর্শক মীর হারুন রশিদ মামলা ও জিডি দায়ের করে। জিডি নং ৪৯৫
সেলুন মালিক হরিবিলাশের টাকা আত্মাসাৎ করা অভিযোগে থানায় জিডি করে। এছাড়া সুমন সরদার নামে এক ব্যাক্তি কমু মোল্লার বিরুদ্ধে মামলা ও জিডি দায়ের করে।জিডি নং ৬১২ মামলা নং ১৭: এছাড়া তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা ও জিডি রয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম