Sun, 17 Jun, 2018
 
logo
 

সেলিম ওসমানের উদ্যোগে জেলা পুলিশকে ৬টি পিকাপভ্যান প্রদান


লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সদর বন্দর ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকার সাধারণ মানুষের যানমালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে থানা পুলিশের ব্যবহারের জন্য নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের পক্ষ থেকে জেলা পুলিশকে ৬টি পিকাপ ভ্যান প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী বিকেল ৪টায় শহরের নারায়ণগঞ্জ-পাগলা-ঢাকা রুটে অবস্থিত জেলা পুলিশ লাইনস এলাকায় জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক এর কাছে পিকাপভ্যান ৬টি হস্তান্তর করা হয়েছে।
জেলা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা পিকাপ ভ্যান গুলোর মধ্য থেকে এমপি সেলিম ওসমানের ব্যক্তিগত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উইজডম অ্যাটায়ার্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে ২টি, নীট গার্মেন্টস ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বিকেএমইএ এর পক্ষ থেকে ২টি, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পক্ষ থেকে ১টি এবং মেট্রো গার্মেন্টের স্বত্তাধিকারী অমল পোদ্দারের পক্ষ থেকে ১টি করে পিকাপ ভ্যান প্রদান করা হয়েছে। যার মধ্য থেকে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার জন্য ২টি, ফতুল্লা মডেল থানার জন্য ১টি, বন্দর থানার জন্য ২টি এবং সিদ্ধিরগঞ্জ থানার জন্য ১টি পিকাপ বরাদ্দ দেওয়া হবে। এছাড়াও তিনি নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের প্রতি অনুরোধ রেখে আরো ২টি পিকাপভ্যান বরাদ্দ দেওয়ার কথা বলেন। সেই সাথে পুলিশের ভিআইপি ডিউটি পালনের জন্য তিনি মন্ত্রনালয় থেকে আরো দুটি স্পেশাল পিকাপভ্যান বরাদ্দ আনার কথা জানিয়েছেন।
এ সময় এমপি সেলিম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জ পুলিশ রূপগঞ্জে যে বিপুল পরিমান অস্ত্র উদ্ধার করেছেন এটি যদি অন্য কোন জেলায় হতো তাহলে উনাদের যে পরিমান সংবর্ধনা দেওয়া হতো তার কিছুই আমরা করতে পারি নাই। আজকে পুলিশকে যে গাড়ি দেওয়া হচ্ছে সে গুলো পুলিশের থেকে বেশি জনগনের কাজে লাগবে। বর্তমান সরকার পুলিশের উপর আস্থাশীল। এখন যারা পুলিশ বাহিনীতে যারা যোগদান করছেন তারা সবাই শিক্ষিত। তাদের তারা জনগনের উপর জুলুম করা সম্ভব হবে না। পুলিশ জনগনের বন্ধু। কিন্তু মাঝে মাঝে আমি শুনতে পাই দুই একজন পুলিশ অফিসার অনেকের পকেটে মাদক ঢুকিয়ে দিয়ে গ্রেপ্তার করে। আমাদের বর্তমান পুলিশ সুপার অত্যন্ত সৎ এবং দক্ষ। আমি সাংবাদিক ভাইদের প্রতি অনুরোধ করবো যদি আপনারা এমন কোন তথ্য পান তাহলে আগেই পত্রিকায় প্রকাশ না করে গোপনে পুলিশ সুপারকে অবহিত করুন। যদি ২৪ ঘন্টার মধ্যে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হয় তারপর আপনারা নিউজ করবেন। কারণ একবার নিউজ প্রকাশ হলে যদি তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না হয় তাহলে এতে অন্যরা উৎসাহিত হওয়ার পাশাপাশি অপকর্মের কৌশল শিখে যায়।
তিনি আরো বলেন, যদি পুলিশ প্রশাসন, আইনজীবী সমিতি, ব্যবসায়ী এবং সাংবাদিক এক টেবিলে বসে দরজা বন্ধ করে নিজেদের মাঝে আলোচনা সমালোচনা যা কিছু করার করে সবাই একত্রে কাজ করলে দেখা যাবে নারায়ণগঞ্জকে শান্তিপূর্ন রাখতে আর কাউকে লাগবে না।
পিকাপ ভ্যান বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিকেএমইএ এর প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি মঞ্জুরুল হক, পরিচালক আবু আহম্মদ সিদ্দিক, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, সহ সভাপতি মোর্শেদ সারোয়ার সোহেল, বিকেএমইএ প্রথম সহ সভাপতি মনসুর আহম্মেদ, দ্বিতীয় সহ সভাপতি ফজলে এহসান শামীম, সহ সভাপতি (অর্থ) হুমায়ন কবির খান শিল্পী, পরিচালক জিএম ফারুক সহ অন্যান্য ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম