Wed, 24 Oct, 2018
 
logo
 

শান্তিপূর্ন পরিবেশ বজায় রাখার অনুরোধ এমপি সেলিম ওসমানের

শহরে হকার ইস্যুতে সৃষ্ট উত্তেজনাকে অত্যন্ত দু:খজনক বলে সবাইকে শান্ত থাকার আহবান রেখেছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান। তিনি বর্তমানে ব্যবসায়ীক কাজে বাংলাদেশের বাইরে অবস্থান করছেন।

শহরে হকারদের সাথে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডাক্তার সেলিনা হায়াৎ আইভীর অনুসারীদের সংঘর্ষের খরব পেয়ে তিনি তাৎক্ষনিক নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সাথে টেলিফোনে খোঁজ নেন। পাশাপাশি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনে শহরকে শান্ত রাখার আহবান রাখেন। সেই সাথে তাৎক্ষনিক ভাবে সকলকে শান্ত হওয়ার আহবান রেখে এমপি সেলিম ওসমানের পক্ষ থেকে মাইকিংয়ের ব্যবস্থা করেন।

বিদেশে অবস্থারত সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান উক্ত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে টেলিফোনে সাংবাদিকদের জানান, শহরে ঘটে যাওয়া ঘটনাটি অত্যন্ত দু:খজনক। এতে সাধারণ জনগনের নিরাপত্তাহানি হয়েছে। এমন ঘটনার যাতে আর পুণরাবৃত্তি না হয় তার জন্য সকল নেতাকর্মীর কাছে সবিনয় অনুরোধ রাখছি। বিষয়টি আলোচনা সাপেক্ষেই নিস্পত্তি করার জন্য সকলের কাছে আহবান রাখছি।

তিনি আরো জানান, দুই একদিনের মধ্যে তিনি দেশে ফিরবেন। দেশে ফিরে হকার এবং সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের সাথে কথা বলে প্রয়োজনে অন্যান্য সংসদ সদস্যদের সাথে নিয়েও বিষয়টি সমাধান করা যেতে পারে। আমি আগেও বলেছি এখনও বলছি তাদের শীতের কাপড় বিক্রি করার জন্য আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত যেন সিটি কর্পোরেশনের মেয়র একটি সুব্যবস্থা করে দেন। সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে প্রেরিত চিঠি এবং পরবর্তীতে মিডিয়ার মাধ্যমে আমি কয়েকটি স্থানের কথা উল্লেখ করেছি তারা কোথায় বসে মালামাল বিক্রি করতে পারে। ওই স্থান গুলোতে যদি হকাররা মালামাল বিক্রি করতে চায় তাহলে তারা সেটি করতে পারে। অন্যথায় অপেক্ষা করা ছাড়া দ্বিতীয় কোন পথ নেই। আর যারা এসব পরিস্থিতির সৃষ্টি করছেন তাদের কাছে বিনীত অনুরোধ কেউ যেন উদ্ভদ্ধ পরিস্থিতির সৃষ্টি না করেন। আলোচনা ছাড়া এ বিষয়টি সমাধানের অন্যকোন পথ নাই। শহরের মানুষ যাতে কোন অবস্থায় আবারো বিশৃঙ্খল পরিস্থিতিতে না পড়েন তার জন্য সকলকে শহরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ করছি। সেই সাথে সকল জনপ্রতিনিধিকে অনুরোধ জানাচ্ছি কেউ যেন বিষয়টি নিয়ে আইন নিজের হাতে তুলে না নেন সেদিকে আপনারা নিজ নিজ অবস্থান থেকে সজাগ দৃষ্টি রাখবেন। কারো যদি কোন বিষয়ে আপত্তি থাকে তাহলে আপত্তির ব্যাপারটি লিখিত ভাবে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে জানানোর অনুরোধ রাখছি তারাই যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

জেলা পুলিশ সুপারের প্রতি আহবান রেখে তিনি বলেন, কোন ধরনের উস্কানি মূলক বক্তব্যে বিভ্রান্ত না হয়ে সজাগ দৃষ্টি রেখে আপনাদের নৈতিক দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করার জন্য অনুরোধ করছি।

জেলা প্রশাসকের প্রতি অনুরোধ রেখে তিনি বলেন, সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের সাথে আলোচনা করে তাঁর প্রস্তাবনা অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন কার্যালয় নগর ভবনের সম্মুখে বিকেল ৫টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত অস্থায়ী ভাবে হকারদের বসার ব্যবস্থা করা হোক। সেই সাথে চাষাঢ়া জিয়া হলের সম্মুখভাগে বাউন্ডারীর ভেতরে যেখানে প্রায় বিভিন্ন মেলা হয়ে থাকে উক্ত স্থানে তাদেরকে শীতবস্ত্র বিক্রি করার ব্যবস্থা করে দিয়ে তাদের রুটিরুজির ব্যবস্থা করা হোক।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম