Fri, 17 Nov, 2017
 
logo
 

নির্বাচন না করে পালালে জনগণ আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত করবে: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: এবারও শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচন হবে এবং সুষ্ঠু হবে বলে দাবি করেছেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম হিরু। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই অগ্রযাত্রাকে থামানোর কেউ নেই। কারণ তার নেতৃত্বে উন্নয়ন হয় মানুষের জন্য।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে নারায়াণগঞ্জের ফতুল্লার দেলপাড়া মাঠে আয়োজিত সমাবেশে একথা বলেন তিনি। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-ডেমরা (ডিএনডি) বাঁধের অভ্যন্তরে জলাবদ্ধতা নিরসনে মেগা প্রকল্পের উদ্বোধনের আগে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাতে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে নজরুল ইসলাম হিরু বলেছেন, আপনি নির্বাচনে না এসে আবারও আগুন সন্ত্রাস শুরু করলে এবার আর জনগণ মাফ করবে না। এবার নির্বাচন না করে পালালে জনগণ আপনাকে আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত করবে। আপনি এতিমদের টাকা মেরে খেয়েছেন, এজন্য আজকে কাঠগড়ায়। আপনি জনগণের মনে আর নেই।

অচিরেই ডিএনডির মেগা প্রকল্পটির কাজ শুরু হবে জানিয়ে নজরুল ইসলাম হিরু বলেন, আগামী ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই আপনারা সেনাবাহিনীকে দেখতে পাবেন। সেনাবাহিনীর অধীনে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহযোগিতায় এ কাজ হবে। পানি উন্নয়ন বোর্ড কাজগুলো করবে। কিন্তু রাজউক (রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ) ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সহায়তায় এ পানি সরিয়ে নির্ধারিত স্থানে নিয়ে যেতে হবে।

তিনি আরো বলেন, এ কাজের জন্য ঢাকার মেয়র ও নারায়ণগঞ্জের মেয়রের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তারা বলেছেন এ কাজে সহায়তা করা হবে। আপনারা আবারও নৌকা প্রতীককে ভোট দিয়ে বিজয়ী করার মাধ্যমে শেখ হাসিনাকে জয়যুক্ত করুন এবং উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখুন।

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপি-জামাতের প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বাংলাদেশের কোথাও দেখিনি এক মঞ্চে বক্তব্য রাখতে বিএনপির নেতাদের। অথচ এখানে আ’লীগের সমাবেশে এসে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে উন্নয়ন হচ্ছে এর জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান সহ বিএনপির বন্ধুরা যে স্বীকৃতি শামীম ওসমানকে দিয়েছে তা দিতে বুকের পাটা লাগে। বর্তমান সরকারের আমলেই পদ্মা সেতু উদ্বোধন হবে। তাছাড়াও সারা দেশে যে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অব্যহত রেখেছেন এর সুফল জনগণ অতিদ্রুত ভোগ করবে। আগামীতেও আপনারা আ’লীগের শামীম ওসমানকে পূণরায় নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে দেশের উন্নয়ণ কর্মকান্ডকে আরো গতিশীল করার লক্ষ্যে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবেন বলে আমি মনে করি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা-৪ আসনের সাংসদ সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ ডিএনডিকে রক্ষা করতে বৃহত্তর বাঁধ দিয়েছিলেন বলে ঐসময় কিছুটা সমস্যার সমাধান হয়েছিলো। কিন্তু বর্তমানে মানুষের চাহিদা অনুযায়ী আবারো ডিএনডির জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য ও ২০ লাখ লোকের সমস্যা দূরীকরনের যে উদ্যোগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্রহন করে একনেকে বরাদ্ধ পাস করেছেন তার জন্য এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানাই। আগামী ২ বছরের মধ্যে ডিএনডি বাসীর জলাবদ্ধতা আর থাকবেনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তা শুধুই দেশেই নয় বর্হিঃবিশ্বেও তিনি প্রশংসিত হয়েছেন। লক্ষ লক্ষ রোহীঙ্গা জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দিয়ে যে সাহসী ভূমিকা রেখেছেন তা ইতিহাসের পাতায় অবিস্মরণীয় হবে থাকবে।
সমাবেশে ফতুল্লা থানা আ’লীগের সভাপতি সাইফুল্লাহ বাদলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শওকত আলীর সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান, ঢাকা শ্যামপুর সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ এড. সানজিদা খানম, জেলা আ’লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাম শহীদ মোঃ বাদল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড. আবুল আবুল কালাম আজাদ, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন, ফাতেমা মনির, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু।
এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি চন্দন শীল, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস, মহানগর আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, জেলা তাতিলীগের সভাপতি এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন, ফতুল্লা ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান স্বপন, দেলোয়ার হোসেন প্রধান, থানা যুবলীগ সভাপতি মীর সোহেল আলী, সাধারণ সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম, শরীফ হোসেন, লিটন প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম