Thu, 14 Dec, 2017
 
logo
 

রূপগঞ্জে পল্লী চিকিৎসককে হাতুড়িপেটা

রূপগঞ্জ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ব্যবসায়িক আধিপত্যের জেরে রূপগঞ্জে এক পল্লী চিকিৎসককে সন্ত্রাসীরা বেধড়ক হাতুড়িপেটা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলে ঐ ব্যবসায়ীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করার হুমকিও দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীদের অব্যাহত হুমকির মুখে পরিবারটি পালিয়ে বেড়াচ্ছে।
থানায় অভিযোগ দায়ের করার পরও থানা পুলিশ রহস্যজনক কারণে নীরব ভূমিকা পালন করছে বলে পরিবারটি অভিযোগ করেছে। বুধবার রাত সাড়ে ১১ টায় কাঞ্চন পৌরসভার মোল্লাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত দেওয়ান কবির আহম্মেদ জজ কেরাব এলাকার মুক্তিযোদ্ধা মৃত দেওয়ান জসিমের ছেলে।
পল্লী চিকিৎসক দেওয়ান কবির আহম্মেদ জজের লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, তিনি দীর্ঘদিন ধরে কেরাব মোড়ে ফার্মেসী ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। তার পাশেই ভাই ভাই মেডিসিন কর্নার নামে ব্যবসা চালিয়ে আসছে কেরাব এলাকার জুয়েল মিয়া। তার ব্যবসা ক্রমে ক্রমে লোকসান হতে শুরু করে। একপর্যায়ে জজের ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার জন্য জুয়েল মিয়া হুমকি প্রদান করে। ব্যবসা বন্ধ না করলে তাকে দেখে নেওয়ারও হুমকি দেয় জুয়েল মিয়া।
বুধবার রাতে কবির আহম্মেদ জজ দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে মোল্লা বাড়ি ( আশাদ কমিশনারের বাড়ি ) পৌঁছলে স্থানীয় সন্ত্রাসী মাদকাসক্ত নবীউর রহমান, জুয়েল মিয়া, নাঈম, সেলিম, আবদুল্লাহ, গাজীপুরের ভাড়াটিয়া কিলার এনামুল হক ও এশাদ আলী তাকে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় নবীউল তার মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে জিম্মি করে। পরে তাকে হাতুড়ি ও লোহার রড় দিয়ে বেধড়ক পেটায়। একপর্যায়ে দৌড়ে পাশ্ববর্তী সামাদ মিয়ার বাড়িতে আশ্রয় নেয়। পরে তার পরিবারে লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।
এদিকে, থানায় মামলা দায়ের না করার জন্য সন্ত্রাসীরা পরিবারটি অব্যাহত হুমকি দিচ্ছে। মামলা করলে সন্ত্রাসীরা ঐ চিকিৎসককে পুড়িয়ে মারারও হুমকি দিয়েছে। বর্তমানে পরিবারটি পালিয়ে বেড়াচ্ছে।
এ ব্যাপারে ভোলাবো ফাঁড়ির ইনচার্জ  ইন্সপেক্টর সেলিম মিয়া বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম