Thu, 13 Dec, 2018
 
logo
 

হকার বিষয়ে জনগনের সাথে আছি: আইভী

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ শহরের ফুটপাথে হকার সমস্যা সমাধানে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও পুলিশ সুপারের সাথে দেখা করেছেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ। আগামীকাল তারা একই বিষয়ে নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসকের সাথে দেখা করবেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াৎ আইভী ও পুলিশ সুপার আনিসুর রহমানের সাথে সাক্ষাৎ করেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি এডভোকেট মাহবুবুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক শরীফ উদ্দিন সবুজ, সাবেক সাধারন সম্পাদক নাফিজ আশরাফ, কোষাধক্ষ রফিকুল ইসলাম জীবন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক। মেয়র ও পুলিশ সুপারের সাথে দেখা করে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, ফুটপাথ জনগনের চলাচলের জন্য। ফুটপাথ হকারমুক্ত রাখতে মেয়র এর আগে জোড়ালো পদক্ষেপ নিয়েছেন। এমনকি ফুটপাথ অবৈধ দখলমুক্ত করতে গিয়ে মেয়রের উপর, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদকসহ সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনাও ঘটেছে। নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়ক, সিরাজুদ্দৌলা সড়কসহ বিভিন্ন এলাকার ফুটপাথ আবারো হকারদের দখলে চলে যাওয়ায় নগরবাসিকে চলাচলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। মানুষকে ফুটপাথ ছেড়ে রাস্তা দিয়ে হাঁটতে হচ্ছে। ফলে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। নগরীর এক নং রেলগেট থেকে কালিরবাজার এলাকায় রোড ডিভাইডার নির্মাণ করা হলেও দু’পাশের অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হয়নি। ফলে রাস্তায় চলাচলের স্থান সংকুচিত হয়ে গেছে। হকারদের লাল রং দিয়ে চিহ্নিত করে ফুটপাথ দখল করতে দেখা যাচ্ছে। একটি চক্র ফুটপাথে হকারদের বসানোর বিনিময়ে মোটা অংকের চাঁদা আদায় করছে। আগে একজন পুলিশ দেখলেই হকাররা ফুটপাথ ছেড়ে দৌড়াতে শুরু করতো। কিন্তু এখন পুলিশের সামনে হকাররা ফুটপাথে বসছে।
এ প্রেক্ষিতে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, হকার বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের অবস্থান আগের মতোই আছে। তিনি জনগনের সাথে আছেন। তিনি বলেন, এজন্য জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা প্রয়োজন। পুলিশ সুপার এসেই বললেন, ফুটপাথের হকার উচ্ছেদ পুলিশের কাজ না। এজন্য হকাররা ও তাদের পেছনে থাকা মহল সাহস পেয়ে গেছে। তিনি জানান, হকার উচ্ছেদে তিনি জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে চিঠি দিয়েছেন।
এ প্রেক্ষিতে নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান বলেন, ফুটপাথে হকার এটি একটি ব্যাপক সমস্যা। সমস্যা সমাধানে পুলিশের আন্তরিকতার অভাব নেই। ব্যাক্তিগতভাবে তিনি পজেটিভ চিন্তা করতে আগ্রহী। তবে এককভাবে পুলিশ এটি সমাধান করতে পারবে না। সিটি কর্পোরেশন, জেলা প্রশাসনসহ সকলকে নিয়েই এ সমস্যা সমাধান করতে হবে। তিনি এ বিষয়ে এর মধ্যেই সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে সিটি মেয়রের একটি চিঠি পেয়েছেন বলে জানান।
২০০৮ সালে চাষাড়ায় ৫০ শতাংশ জায়গার উপর নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন হকার্স মার্কেট নির্মাণ করে ৬৭২ জন হকারকে পুনর্বাসন করে। তখন তালিকার বাইরে আর কোনো হকার ছিলোনা। কিন্তু পরে হকাররা সে দোকান বিক্রি করে দিয়ে অথবা গ্রাম থেকে আরো আত্মীয়স্বজন এনে আবারো ফুটপাথ দখল করে ব্যবসা শুরু করে। আগের হকার মার্কেটের জায়গায় বহুতল ভবন নির্মাণ করে আরো হকার পুনর্বাসনের লক্ষে অর্থ বরাদ্দের জন্য সিটি কর্পোরেশন মন্ত্রনালয়ে প্রস্তাব পাঠিয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম