Fri, 14 Dec, 2018
 
logo
 

তাজিয়ার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন, শুক্রবার দুপুরে মিছিল

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আশুরা মুসলিম বিশ্বে ত্যাগ ও শোকের একটি দিন। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে আগামীকাল শুক্রবার (২১ সেপ্টেম্বর) পবিত্র আশুরা উদযাপিত হবে। ইতোমধ্যেই পবিত্র আশুরা পালনে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে শিয়া সম্প্রদায়ের মুসলমানরা।

জানা গেছে, হিজরির সাল অনুসারে মহররম মাসের ১০ তারিখে কারবালায় হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর দৌহিত্র ইমাম হোসেনের মৃত্যুর দিনটি সারাবিশ্বে মুসলমানরা পালন করেন। দিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি পালিত হয়। আগামী কাল দশই মহররম তাজিয়া মিছিল উপলক্ষে মিছিলের পথে নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। মিছিল নির্বিঘ্ন করতে তৎপর রয়েছে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী। পাশাপাশি তাজিয়া মিছিলের শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে কাজ করবে স্বেচ্ছাসেবী।

দেশে শিয়া সম্প্রদায় মহররম মাসের প্রথম দশ দিন শোক স্মরণে নানা কর্মসূচি পালন করে। আশুরার দিনে তাজিয়া মিছিল বের করা হয় শোকের আবহে। মূলত ইমাম হোসেন (রা.) এর সমাধির প্রতিকৃতি নিয়ে এই মিছিল হয়। আরবি ‘তাজিয়া’ শব্দটি শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করতে ব্যবহার করা হয়।

জেলার মন্ডলপাড়া থেকে তাজিয়া মিছিল বের হবে। পাশাপাশি মেট্টোহল মোড় থেকেও আশুরার মিছিল বের হয়। হাজারও মানুষ এই শোক মিছিলে ‘হায় হোসেন-হায় হোসেন’ মাতম তুলে অংশ নেয়। পবিত্র আশুরা উপলক্ষে সরকারি ছুটি পালিত হবে।

এবিষয়ে শিয়া সম্প্রদায়ের জাবেদ বলেন, এই দিনটি ইসলামের একটি তাৎপর্য দিন। এই দিনে ইয়াজিদের সৈন্যরা ইমাম হোসেন (রা) কে হত্যা করে। তাই আমরা এই দিনে তাদের স্মরণ করে বিভিন্ন আয়োজন করে থাকি। এই দিনে যারা শহীদ হয়েছেন, তাদের স্বরনার্থে (২০ সেপ্টেম্বর) দক্ষিন র‌্যালি বাগানে রাত ৯ টায় ফাতেহা শরীফ হবে এবং তাদের জন্য দোয়া কামনা করা হবে। তার পরবর্তী জুময়ার দিন (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২ টার পরে তাজিয়া মিছিল বের হবে।

উল্লেখ্য, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর দৌহিত্র হযরত ইমাম হোসাইন ইবনে আলী (রা.) হিজরি ৬১ সনের ১০ মহররম কারবালার ফোরাত নদীর তীরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে শাহাদাত বরণ করেন। এই শোক ও স্মৃতিকে স্মরণ করে মুসলিমরা আশুরাকে ত্যাগ ও শোকের দিন হিসেবে পালন করেন।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম