Sun, 23 Sep, 2018
 
logo
 

সোনারগাঁয়ে বিএনপি জামায়াতের ৬৭ জনের বিরুদ্ধে আরো নাশকতার মামলা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের বারদী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান আলী আজগরকে প্রধান আসামী করে বিএনপি জামায়াতের ৬৭ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে আরো একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এ নিয়ে সোনারগাঁও থানায় তিনটি ও জেলায় ১৫টি মামলা হলো গত এক মাসে।১৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে বারদী ক্যাম্পের এসআই মিজানুর রহমান বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় আরো ৩০-৪০জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়। বারদী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান আলী আগজরকে এ মামলায় প্রধান আসামী করা হয়। আগামী সংসদ নির্বাচন বানচাল ও গণতান্ত্রিক সরকারকে উৎখাত ও বিস্ফোরক দ্রব্য দিয়ে বিভিন্ন সরকারী প্রতিষ্ঠানে হামলার উদ্দেশ্যে বারদী বাস স্ট্যান্ড এলাকায় ষড়যন্ত্রের করছিল বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। এর আগে ৯ সেপ্টেম্বর রাতে সাদিপুর ইউনিয়ন বিএনপির ৪৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছিল।সোনারগাঁ থানার ওসি মোরশেদ আলম পিপিএম জানান, উপজেলার বারদী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আলী আজগর প্রায় শতাধিক বিএনপির নেতাকর্মীদের নিয়ে গত বুধবার দুপুরে বারদী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র ও বিভিন্ন সরকারী প্রতিষ্ঠানে বিস্ফোরক দ্রব্য দিয়ে হামলায় ষড়যন্ত্র করছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে সোনারগাঁ থানার এসআই ইসহাক মিয়ার নেতৃত্বে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মীরা পালিয়ে যায়। এসময় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান আলী আজগরকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় বারদী ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক(এসআই) মিজানুর রহমান বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ৬৭ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ৩০-৪০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।সোনারগাঁ থানা বিএনপি সভাপতি খন্দকার আবু জাফর বলেন, কোন ঘটনা ছাড়াই বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ভূতরে মামলা দায়ের করছে পুলিশ। সম্প্রতি যে তিনটি মামলায় ঘটনা উল্লেখ করেছেন ওই এলাকায় কোন মিটিং মিছিলের ঘটনা ঘটেনি। এলাকা টার্গেট করে পুলিশ একের পর এক বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করছেন।

শহরজুড়ের অন্যান্য খবর

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম