Mon, 23 Oct, 2017
 
logo
 

রোহিঙ্গা আব্দুল্লাহর বাবা কাশিপুরের মোক্তার হোসেন


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নিজেকে রোহিঙ্গা বলে দাবি করা ছেলেটি ফতুল্লার কাশিপুরে হোসাইনিনগর এলাকার মোক্তার হোসেনের ছেলে। তার নাম মাহাবুব।

অথচ গত শনিবার শহরের খাঁনপুর এলাকা অবস্থান কালে নিজেকে রোহিঙ্গা দাবি করে আব্দুল্লাহ (২৫) নামে পরিচয় দিয়েছিল ছেলেটি। ওই সময় প্রতক্ষর্দশীরা জানিয়ে ছিলেন, হিন্দি ভাষায় আব্দুল্লাহ বলেছেন, ভারতীয় সীমান্ত দিয়ে পশ্চিম বাংলায় ডুকেছিলো আব্দুল্লাহ তারপর ও বাংলাদেশের বেনাপোল দিয়ে ডুকেছে। ওর মা, বোন ও ছোট ভাইকে কুপিয়ে, কুপিয়ে মেরে ফেলছে ওই দেশের সেনাবাহিনির সদস্যরা।

পরে তাকে উদ্ধার করে খানপুর সরকারি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে পুলিশ প্রহরায় তাকে কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাঠানো হয়। তবে পথিমধ্যে পুলিশ প্রকৃত ঘটনা টের পেয়ে আবারও রাতে তাকে থানায় নিয়ে আসে। তখন বেরিয়ে আসতে থাকে একের পর এক তথ্য।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি শাহীন শাহ পারভেজ জানান, তিনজন পুলিশ প্রহরায় মাহাবুবকে কক্সবাজার যাওয়ার পথে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসতে থাকে। তখন জানাজানি হয় তার নাম মাহাবুব। বাড়ি ফতুল্লার কাশীপুরে। পরিবারের লোকজন এসে তাকে শনাক্ত করে।

ওসি আরো জানান, মাহাবুব মানসিক প্রতিবন্ধী। তার বাবার জিম্মায় তাকে দেওয়া হয়েছে।

 

পূর্বের নিউজ পড়তে ক্লিক করুন:

জীবন বাঁচাতে না.গঞ্জে আসা আব্দুল্লাহ মিয়ানমারে ফেলে এসেছে মা, বোন ও ছোট ভাইয়ের লাশ

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম